ঢাকা, শনিবার, ৩ মাঘ ১৪২৭, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

রাজনীতি

বিএনপি-জামায়াতের ভাড়াটে খেলোয়াড়দের বিবৃতি সংবিধানবিরোধী: জাসদ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৪, ২০২০
বিএনপি-জামায়াতের ভাড়াটে খেলোয়াড়দের বিবৃতি সংবিধানবিরোধী: জাসদ ...

ঢাকা: বিএনপি-জামায়াত-জঙ্গির ভাড়াটে খেলোয়াড় ‘রাজনৈতিক মোল্লা’দের বিবৃতিকে জাতীয় ইতিহাস-ঐতিহ্য-সংবিধানবিরোধী বলে মন্তব্য করেছে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) নেতারা।  

শুক্রবার (০৪ ডিসেম্বর) জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু ও সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এক বিবৃতিতে এ মন্তব্য করেন।


বিবৃতিতে বিএনপি-জামায়াত-জঙ্গির ভাড়াটে খেলোয়াড় আলেম নামধারী কতিপয় রাজনৈতিক মোল্লাদের দেওয়া ভাস্কর্য ও প্রতিমা/মূর্তি বিরোধী বিবৃতির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদে ক্ষোভ জানানো হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে তথাকথিত বিতর্কের এ পর্যায়ে গতকাল ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি-জামায়াত-জঙ্গির ভাড়াটে খেলোয়াড় রাজনৈতিক মোল্লারা ‘মানুষ বা অন্য যেকোনো প্রাণির ভাস্কর্য অথবা মূর্তি নির্মাণ, স্থাপন ও সংরক্ষণ পূজার উদ্দেশ্যে না হলেও সন্দেহাতীতভাবে নাজায়েজ, স্পষ্ট হারাম এবং কঠোরতম আজাবযোগ্য গুনাহ’ বলার মাধ্যমে পৃথিবীর দেশে দেশে মুসলিম-অমুসলিম নির্বিশেষে সকল জাতির ইতিহাস-ঐতিহ্য-সংস্কৃতি-জীবনবোধ-আইন-নীতি-সংবিধানের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে।

নেতারা বলেন, এসব রাজনৈতিক মোল্লারা উপরন্তু অপরাপর ধর্মাবলম্বীদের পুজার উদ্দেশ্যে প্রতিমা স্থাপনকেও ‘স্পষ্ট শিরক’ বলার মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক উস্কানি দেওয়ার মতো এবং ধর্মগুলোর মধ্যে তুলনা করার মতো গর্হিত অপরাধ করেছে। এদের এ নিন্দনীয় ও গর্হিত অপরাধ বাংলাদেশের সংবিধানে ঘোষিত মৌলনীতিমালার পরিপন্থী।

জাসদ সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক তাঁদের বিবৃতিতে উল্লেখ করেন, ‘যারা বলছেন মূর্তি ও ভাস্কর্য এক নয়, তারা ভুল বলছেন’ বলে এসব রাজনৈতিক মোল্লারা যে বক্তব্য দিয়েছে তা অশিক্ষাপ্রসূত। প্রতিমা/মূর্তি সঙ্গে রয়েছে পারলৌকিকতার সম্পর্ক আর ভাস্কর্যে সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে ইহজাগতিকতার সম্পর্ক। তার মানে এই নয় যে প্রতিমা নাজায়েজ আর ভাস্কর্য জায়েজ- আমরা মনে করি এখানে কোনো ধরনের তুলনা গ্রহনযোগ্য নয়।

হাসানুল হক ইনু ও শিরীন আখতার বলেন, যে বিএনপি-জামায়াত-জঙ্গির ভাড়াটে খেলোয়াড় এসব রাজনৈতিক মোল্লারা ‘অন্য কোনো মুসলিম দেশে ভাস্কর্য থাকলেও উদাহরণ দিয়ে ভাস্কর্যকে জায়েজ করা যাবে না’ এবং ‘প্রাণীর ভাস্কর্য আর মূর্তির মধ্যে পার্থক্য করে প্রাণীর ভাস্কর্যকে বৈধ বলা সত্য গোপন করা’ বললেও এদের এসব বক্তব্য পৃথিবীর দেশে দেশে মুসলিমদের জীবনাচারের বিরোধী এবং সক্রিয় অসংখ্য মুসলিম-চিন্তাবিদদের মতামতের সাথে সাংঘর্ষিক।

“আলেম নামধারী বিএনপি-জামায়াত-জঙ্গির এসব ভাড়াটে খেলোয়াড় রাজনৈতিক মোল্লারা এমনকি আল্লাহ্, নবী ও কোরআন শরিফের বিরুদ্ধেও অবস্থান নিয়েছে। পবিত্র কোরানের সুরা কাফিরুনের রুকু ১ (এক)-এর আয়াত ৬ (ছয়)-এ পরিষ্কারভাবে বলা হয়েছে ‘লাকুম দ্বীনুকুম ওয়ালিয়া দ্বীন’ বা ‘তোমাদের ধর্ম তোমাদের, আমার ধর্ম আমার’। ”

জাসদ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বলেন বিএনপি-জামায়াত-জঙ্গির ভাড়াটে খেলোয়াড় এসব রাজনৈতিক মোল্লাদের বিবৃতির নেতৃত্ব দিয়েছেন হেফাজতে ইসলামের আমির জুনায়েদ বাবুনগরী, আর স্বাক্ষরদাতাদের প্রায় সকলে হেফাজত ও শাসনতন্ত্র আন্দোলনের রাজনৈতিক মোল্লা। এরা প্রকৃত আলেম-ওলামা নয় বরং এরা রাজনৈতিক দলের নেতা, এদের মার্কা আছে, এরা নির্বাচন করে এবং এরা বিএনপি-জামায়াত-জঙ্গির ভাড়াটে খেলোয়াড়। এদের বিবৃতির ভাষ্য বেআইনী ও উস্কানিমূলক এবং সংবিধান ও রাস্ট্র বিরোধী, সুতরাং শাস্তিযোগ্য।  

জাসদের নেতারা অবিলম্বে বিএনপি-জামায়াত-জঙ্গির ভাড়াটে খেলোয়াড় এসব রাজনৈতিক মোল্লাদের আইনের আওতায় এনে গ্রেফতার, বিচার ও শাস্তি দাবি করেন।  

বাংলাদেশ সময়: ২১২৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৪, ২০২০
আরকেআর/এইচএডি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa