ঢাকা, শনিবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২

রাজনীতি

গণতন্ত্রের প্রশ্নে রেহানা প্রধান ছিলেন আপসহীন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ২২, ২০২০
গণতন্ত্রের প্রশ্নে রেহানা প্রধান ছিলেন আপসহীন জাগপার সাবেক সভাপতি রেহানা প্রধানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভা

ঢাকা: গণতন্ত্র, বাকস্বাধীনতার প্রশ্নে অধ্যাপিকা রেহানা প্রধান ছিলেন আপসহীন। তিনি আজীবন শফিউল আলম প্রধানের পাশে থেকে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন।

বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) বিকেলে নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয়ে জাগপা’র সাবেক সভাপতি রেহানা প্রধানের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে খন্দকার লুৎফর রহমান এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ক্ষমতাসীনরা রাজনীতির পথ হারিয়ে ফেলেছে। মনে রাখতে হবে, শুধু নির্বাচিত হলেই সরকার গণতান্ত্রিক হয় না, শুধু উন্নয়ন দিয়ে ক্ষমতায় টিকে থাকা যায় না। দেশে নতুন প্লাবনের পদধ্বনি শোনা যাচ্ছে, যে প্লাবনে সকল দুর্নীতি-দুর্বৃত্তায়ন-অন্যায় অত্যাচার ভেসে যাবে। দেশ আজ ধর্ষণ আর দুর্নীতিবাজদের কালো থাবায় ক্ষত-বিক্ষত। চারদিকে দুর্নীতিবাজদের জয়জয়কার।

স্মরণসভায় আরো অংশ নেন জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) সাধারণ সম্পাদক এস এম শাহাদাত, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. আওলাদ হোসেন শিল্পী, সাইফুল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ ফরিদ উদ্দিন পাটোয়ারী, নগর জাগপার সভাপতি মোহাম্মদ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন আল আজাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মনসুর রহমান প্রমুখ।

স্মরনসভায় জাগপার প্রতিষ্ঠাতা শফিউল আলম প্রধান ও সাবেক সভাপতি অধ্যাপিকা রেহানা প্রধানের রুহের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয় এবং গ্রেফতার সাংবাদিক নেতা রহুল আমিন গাজীর নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানানো হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২২, ২০২০
এমএইচ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa