ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

রাজনীতি

বিএনপিতে মহাসচিব পদ নিয়ে দৌড়ঝাঁপ

মান্নান মারুফ, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১০৮ ঘণ্টা, আগস্ট ২৯, ২০১০
বিএনপিতে মহাসচিব পদ নিয়ে দৌড়ঝাঁপ

ঢাকা: খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনকে হটিয়ে মহাসচিব পদে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের দৌড়ঝাঁপ বাড়ছে বিএনপিতে। তাদের আকাঙ্খা পূরণের তদবির আর দেলোয়ারবিরোধী তৎপরতাও বাড়ছে।



বেশ কয়েকজন নেতা দলের পরবর্তী মহাসচিব হতে চান বলে জোর জল্পনা চলছে। স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও যুগ্ম-মহাসচিব আমান উল্লাহ আমানের নাম শোনা যাচ্ছে সবচেয়ে বেশী।

এছাড়া স্থায়ী কমিটির সদস্য আসম হান্নান শাহও দলের মহাসচিব পদ পেতে চান বলে জানা গেছে।

তবে স্থায়ী কমিটির আর এক সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় এখনই নয় বরং একটু সময় নিয়েই ওই পদে বসতে চান। আর এ মুহূর্তে খোন্দকার দেলোয়ারের পক্ষেই তার শক্ত সমর্থন। গয়েশ্বর চন্দ্র রায় চান দেলোয়ার আরও কিছু দিন মহাসচিব থাকুন। তবে তিনি চান দেলোয়ারবিহীন মহাসচিবের চেয়ারটি তারই হোক। এমনটি জানিয়েছে গয়েশ্বরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র ।

দলের অন্য একটি সূত্র জানিয়েছে, খোন্দকার দেলোয়ারকে অবসরে পাঠাতে উঠে পড়ে লেগেছেন মোশাররফ, ফখরুল, আমানরা। একদিকে তারা মহাসচিব পদে দায়িত্ব পালনের মতো শারীরিক সুস্থতা খোন্দকার দেলোয়ারের নেই বলে প্রচারণা চালাচ্ছেন। অন্যদিকে কানভারি করছেন চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার। দেলোয়ারপুত্র আখতার হামিদ পবনের নানা কুকীর্তি এক্ষেত্রে তাদের বড় পূঁজি।

২০০৯ সালে দলের সর্বশেষ জাতীয় কাউন্সিলে মহাসচিব পদে মনোনয়ন লাভে ব্যর্থ ড. খন্দকার মোশাররফ এবার খালেদা জিয়ার সঙ্গে নতুন করে দেনদরবার শুরু করেছেন।
 
এদিকে, ওয়ান ইলেভেনের পরিবর্তিত রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে তৎকালীন মহাসচিব আব্দুল মান্নান ভুঁইয়ার মহাসচিব পদকে চ্যালেঞ্জ করে আলোচনায় উঠে আসা আসম হান্নান শাহও মহাসচিব হওয়ার দৌড়ঝাঁপ চালিয়ে যাচ্ছেন সমানে। সর্বশেষ জাতীয় কাউন্সিলে তাকে স্থায়ী কমিটির সদস্য করা হলেও সাবেক এই সেনা কর্মকর্তা তাতে সন্তুষ্ট নন বলে জানা গেছে।

এদিকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও আমান উল্লাহ আমান বিদেশে চিকিৎসাধীন তারেক রহমানের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করছেন।

মির্জা ফখরুল সর্বশেষ জাতীয় কাউন্সিলের পর কয়েক দফা লন্ডন সফর করেন। এসব সফরে তিনি বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। মহাসচিব হওয়ার দৌড়ে তিনি অনেকটাই এগিয়ে গেছেন বলেই দলীয় সূত্রের দাবি।

আর আমান উল্লাহ আমান অবৈধভাবে সম্পদ অর্জনসহ নানা বিতর্কে জড়িয়ে পড়লেও অনেকে ভাবছেন, তিনিই হতে যাচ্ছেন পরবর্তী মহাসচিব।

তবে মহাসচিব পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী না হলেও দেলোয়ারকেও ওই পদে আর দেখতে চান না সাদেক হোসেন খোকা, জয়নুল আবদীন ফারুক ও শমশের মবিন চৌধুরীসহ ডজন খানেক নেতা ।

এদের যুক্তি, বিএনপি এখন বিরোধী দলে। এ সময় দলকে চাঙ্গা রাখা ও সরকারবিরোধী আন্দোলনে যে শ্রম দেওয়া দরকার তা খোন্দকার দেলোয়ারের পক্ষে সম্ভব নয়। তিনি বেশিরভাগ সময়ই অসুস্থ থাকেন। ফলে নেতাকর্মীদের মধ্যে হতাশা কাজ করে। দল চাঙ্গা রাখতে একজন সার্বক্ষণিক মহাসচিব দরকার বলেই মনে করেন তারা।

তবে বর্ষীয়ান দেলোয়ারের পক্ষের লোকেরও অভাব নেই। এ তালিকায় নাম আসতে পারে স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম, মির্জা আব্বাস, সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীসহ অধিকাংশ নেতা।

মহাসচিব পদ প্রত্যাশী কিনা জানতে চাইলে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে বলেন, ‘কে মহাসচিব হতে চায় বা না চায় তা গুরুত্বপূর্ণ নয়। তবে বিরোধী দল হিসেবে বিএনপি এখন অনেক ঝড় ঝাপটার মধ্যে দিয়ে এগুচ্ছে। এসব ঝড় ঝাপটা কাটিয়ে উঠতে মহাসচিব পদে এমন কাউকে বসানো দরকার যিনি কাজটি সুচারুভাবে করতে পারবেন, একই সঙ্গে অভিজ্ঞও। ’

ড. মোশাররফ আরও বলেন, ‘তিনি (দেলোয়ার) অসুস্থ তা ঠিক। তবে তার অনুপস্থিতিতে আমরা মহাসমাবেশ করছি না। আমরা তাকে সার্বক্ষণিক সহযোগিতা করে থাকি। তিনি কোনো কর্মসূচিতে না থাকতে পারলে দলের স্বার্থে আমরাই দায়িত্ব পালন করে থাকি। ’
 
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে বলেন, ‘আমি এ বিষয়ে কিছু জানি না। কে মহাসচিব হবেন এটা নির্ধারণ করার দায়িত্ব চেয়ারপারসনের। ’

মহাসচিব খোন্দকার দেলোয়ার হোসেন বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে বলেন, ‘দুর্যোগকালে আমাকে ম্যাডাম দায়িত্ব দিয়েছিলেন। সে দায়িত্ব আমি জীবন বাজী রেখে পালন করেছি। দলের যাতে কোনো ক্ষতি না হয় সেজন্য তখনো কাজ করেছি। এখনো আমি আপ্রাণ চেষ্টা করছি দলের মঙ্গলের। ’

তবে ওয়ান-ইলেভেন পরবর্তী ‘দুঃসময়ের কাণ্ডারি’ দেলোয়ারকে এখনই মহাসচিব পদ থেকে সরিয়ে দিতে চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া রাজী হচ্ছেন না বলে বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে জানিয়েছেন চেয়ারপারসনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ একজন নেতা।

বাংলাদেশ সময়: ১০৫০ ঘণ্টা, আগস্ট ২৯, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa