bangla news
পৌর নির্বাচন

আ’লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত করবে সংসদীয় বোর্ড

|
আপডেট: ২০১৫-১১-২৬ ১:২৯:০০ পিএম

পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের মনোনয়ন চূড়ান্ত করবে দলের সংসদীয় বোর্ড। সংশ্লিষ্ট পৌরসভার সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, জেলার সভাপতি...

ঢাকা: পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের মনোনয়ন চূড়ান্ত করবে দলের সংসদীয় বোর্ড।

সংশ্লিষ্ট পৌরসভার সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, জেলার সভাপতি, ‍সাধারণ সম্পাদক এবং স্থানীয় সংসদ সদস্য- এই সাতজন মিলে পৌর মেয়র পদে একজন প্রার্থীর নাম কেন্দ্রে পাঠাবেন।

একজনকে মনোনীত করা সম্ভব না হলে একাধিক নামও পাঠাতে পারবেন তারা। পরে আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ড বসে একজন প্রার্থীর মনোনয়ন চূড়ান্ত করবে। 

বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। রাতে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সভা শেষে ‍আওয়ামী লীগের একাধিক নেতার সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে। পৌরসভা নির্বাচনে দলের মেয়র প্রার্থী মনোনয়ন প্রক্রিয়া নির্ধারণ করার জন্যই এ সভা আহ্বান করা হয়।  

সভায় দলের সংসদীয় বোর্ডের সদস্যদেরও রাখা হয়। এ যৌথ সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য প্রার্থী মনোনয়নের জন্য দলের যে সংসদীয় বোর্ড রয়েছে, এই বোর্ডই পৌরসভা নির্বাচনী বোর্ড হিসেবে কাজ করবে। এই বোর্ডে যারা সদস্য রয়েছেন এর বাইরে আরও দুয়েক জনকে নেওয়া হতে পারে বলেও জানা গেছে।  ‍

সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে তৃণমূল থেকে এক বা একাধিক প্রার্থী মনোনীত করে কেন্দ্রে পাঠাতে হবে।

আগামী ৩০ ডিসেম্বর সারাদেশে ২৩৬টি পৌরসভার নির্বাচন  অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ৩ ডিসেম্বর প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন।

এদিকে পৌর নির্বাচনে মন্ত্রী-এমপিরা যাতে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিতে পারেন, সে ব্যাপারে অনুরোধ করতে আওয়ামী লীগ নির্বাচন কমিশনে একটি প্রতিনিধি দল পাঠাবে বলে সভা সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র আরও জানায়, ডিসেম্বরে ‍আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন করার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। গত ১২ অক্টোবর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কিন্তু ডিসেম্বরে পৌর নির্বাচন রয়েছে, তাই এ সম্মেলন হচ্ছে না বলে সভায় জানানো হয়েছে। সম্মেলনের তারিখ পরবর্তী সভায় নির্ধারণ করা হবে।

সভায় সম্প্রতি যেসব জেলায় আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে, তার মধ্য থেকে ১০টি জেলার নতুন কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। জেলাগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- রাজশাহী মহানগর, ঝিনাইদহ ও নোয়াখালী।
 
বাংলাদেশ সময়: ০০২৯ ঘণ্টা, ২৭ নভেম্বর, ২০১৫
এসকে/আরএম

** দেখতে চাই বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেয় কিনা
** বাংলাদেশ যেন দাঁড়াতে না পারে সে অপচেষ্টা হয়েছিল

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2015-11-26 13:29:00