ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৮ মে ২০২৪, ১৯ জিলকদ ১৪৪৫

রাজনীতি

পহেলা বৈশাখ নিয়ে ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্য দুরভিসন্ধিমূলক: রিজভী

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯০১ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৪, ২০২৪
পহেলা বৈশাখ নিয়ে ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্য দুরভিসন্ধিমূলক: রিজভী

ঢাকা: পহেলা বৈশাখ নিয়ে ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্য দুরভিসন্ধিমূলক বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।

বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে রোববার (১৪ এপ্রিল) বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির অঙ্গ সংগঠন জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন-জাসাসের বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে তিনি মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন- ‘বিএনপি বাঙালি সংস্কৃতিকে সহ্য করতে পারে না। ’ আমরা বলবো- ওয়ায়দুল কাদের তলে তলে প্রভুদের খুশি করতে চাইছেন। তার বক্তব্য দুরভিসন্ধিমূলক।
 
সরকার সংস্কৃতি পরিবর্তনের চেষ্টা করছে এমন মন্তব্য করে তিনি বলেন, ওবায়দুল কাদেরের কাছে জানতে চাই- আপনি কোন সংস্কৃতিতে বিশ্বাস করেন? বিএনপি এক হাজার ইফতার পার্টি করতেই পারে। গরিব-দুঃখীদের নিয়ে ইফতার করেছে। কিন্তু ভারত থেকে নায়ক-নায়িকা নিয়ে এসে পার্টি করেন, ওখানে টাকা খরচ হয় না?

আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে ভাষা, সংস্কৃতি, স্বাধীনতার নিরাপত্তা নেই বলেও মন্তব্য করেন রিজভী। সরকার সংস্কৃতিকে পরিবর্তনের চেষ্টা করছে বলেও মনে করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব।

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সঙ্গে বিএনপি জড়িত উল্লেখ করে রিজভী বলেন, যারা গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে চায়, তারা কেউ ভালো নেই।
 
সব জায়গায় লুটপাটের ক্ষেত্র তৈরি হয়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, চালের দাম চড়া। চালের দাম কমানোর কথা বলে সরকার দাম আরও বাড়িয়েছে। সরকারের লোকজন সিন্ডিকেট করে বাজার নিয়ন্ত্রণ করছে। সিন্ডিকেটের কারণে ব্যাংকগুলো মুখ থুবড়ে পড়ছে। ব্যাংক একত্রিতকরণ করার নামে লুট হওয়া ব্যাংকগুলোকে আরও দেউলিয়া করার সুযোগ করে দিচ্ছে। ঋণখেলাপিরা সরকারের ঘনিষ্ঠ লোক। ঋণের পর ঋণ নেওয়ার ব্যবস্থা করে দেওয়া হচ্ছে তাদের।

রিজভী বলেন, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে এবার ঈদে কেনাকাটা অনেক কম হয়েছে। সব মিলিয়ে ঈদ সাধারণ মানুষের আনন্দ কান্নায় পরিণত হয়েছে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুস সালাম বলেন, বাংলাদেশের মানুষ ভালো নেই, তাদের ঈদ আনন্দ বিষাদে পরিণত হয়েছে। আর ওবায়দুল কাদের শুধু বিএনপিকে খুঁজে। ঈদের আগেও বিএনপিকে খুঁজে, আবার নববর্ষেও খুঁজে।
 
জাসাসের যুগ্ম আহ্বায়ক লিয়াকত আলীর সভাপতিত্বে এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারী, তারিকুল আলম তেনজিং, কৃষক দলের যুগ্ম সম্পাদক কৃষিবিদ মেহেদী হাসান পলাশ, কেন্দ্রীয় যুবদলের সাবেক সদস্য বেলাল উদ্দিন সরকার তুহিন, কেন্দ্রীয় নেতা গিয়াসউদ্দিন আল মামুন ওমর ফারুক কায়সার প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৪, ২০২৪
টিএ/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।