ঢাকা, সোমবার, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২২ শাবান ১৪৪৫

রাজনীতি

‘বিএনপির কাছে মানুষের ভোটের চেয়ে লাশ গুরুত্বপূর্ণ’

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৭, ২০২৩
‘বিএনপির কাছে মানুষের ভোটের চেয়ে লাশ গুরুত্বপূর্ণ’

লক্ষ্মীপুর: ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন বলেছেন, বিএনপির কাছে মানুষের ভোটের চেয়ে মানুষের লাশ গুরুত্বপূর্ণ। তাদের কাছে বাংলাদেশের সংবিধানের চেয়ে বিদেশিদের প্রেসক্রিপশন গুরুত্বপূর্ণ।

তাদের কাছে বাংলার জনগণের অর্থনৈতিক উন্নয়নের চেয়ে মানি লন্ডারিং করে বিদেশে টাকা পাঠানোটা গুরুত্বপূর্ণ।

শুক্রবার (২৭ জানুয়ারি) বিকেলে লক্ষ্মীপুর জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে আয়োজিত নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে তিনি এসব কথা বলেন।  

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লক্ষ্মীপুরের কৃতি সন্তান তানভীর হাসান সৈকতকে এ সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এ সময় সৈকতকে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার প্রতিনিধিরা ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। লক্ষ্মীপুর আদর্শ সামাদ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু, সাধারণ সম্পাদক নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, সাবেক এমপি আবদুল্লাহ আল মামুন, লক্ষ্মীপুর পৌরসভার মেয়র মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভূঁইয়া, কেন্দ্রীয় যুবলীগের উপ-পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক শামছুল ইসলাম পাটওয়ারী, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাবেক যুবলীগ নেতা একেএম সালাহ্ উদ্দিন টিপু, কমলনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মেসবাহউদ্দিন বাপ্পী, আওয়ামী লীগ নেতা রাসেল মাহমুদ মান্না ও যুবলীগ নেতা নজরুল ইসলাম ভুলু।

ছাত্রলীগের সভাপতি বলেন, আগামী দিনে বিএনপি-জামায়াতের যেকোনো ধরনের অরাজকতা, নৈরাজ্য, অগ্নিসংযোগের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ থাকবে ছাত্রলীগ। ছাত্রসমাজের ঐক্যবদ্ধ শক্তির মাধ্যমে বিএনপির রাজনৈতিক পরাজয় নিশ্চিত করা হবে।  

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা আমাদের জন্য শিক্ষাখাতে ৮১ হাজার কোটি টাকা বাজেট ঘোষণা করেছেন। বছরের প্রথম দিন শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যে নতুন বই তুলে দেওয়া হয়। শেখ হাসিনার ছোঁয়ায় দেশের সর্বত্র উন্নয়নের জোয়ার বইছে। আগামী নির্বাচনে স্মার্ট বাংলাদেশের পক্ষে রায় দেবে জনগণ।  

ছাত্রলীগ নেতা তানভীর হাসান সৈকত বলেন, আমাকে ঢাবি ছাত্রলীগের দায়িত্ব দিয়ে লক্ষ্মীপুরবাসীকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপহার দিয়েছেন। আমরাও আগামী নির্বাচনে লক্ষ্মীপুরের ৪টি আসন শেখ হাসিনাকে উপহার দেবো। লক্ষ্মীপুরকে বিএনপি-জামায়াতের অধ্যুষিত বলে কুৎসা রটানো হয়। ৪টি আসন উপহার দিয়ে লক্ষ্মীপুরকে শেখ হাসিনার ঘাঁটি হিসেবে পরিণত করবো। তখন লক্ষ্মীপুর হবে আওয়ামী লীগের ঘাঁটি, লক্ষ্মীপুর হবে জয় বাংলার ঘাঁটি।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম রকির সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় এতে বিশেষ বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালি আসিফ ইনান ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি মাজহারুল ইসলাম শয়ন।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৭, ২০২৩
জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।