ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ মাঘ ১৪২৯, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১০ রজব ১৪৪৪

রাজনীতি

ঢাকায় সরকারকে ‘লাল কার্ড’ দেখাতে চায় বিএনপি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬২৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩, ২০২২
ঢাকায় সরকারকে ‘লাল কার্ড’ দেখাতে চায় বিএনপি

রাজশাহী: রাজশাহী বিভাগীয় গণসমাবেশে সরকারকে হলুদ কার্ড দেখালেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু। সেইসংঙ্গে ঢাকায় লাল কার্ড দেখানোরও ঘোষণা দেন তিনি।

শনিবার (৩ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজশাহী মহানগরীর ঐতিহাসিক মাদরাসা ময়দানে এই সমাবেশের আয়োজন করা হয়।  

এতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতারা উপস্থিত আছেন।

এর আগে নাটোর জেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা হলুদ ক্যাপ পরে গণসমাবেশস্থলে আসেন। সমাবেশ শুরুর পর সমন্বয়ক হিসেবে বক্তব্য দেন বিএনপির রাজশাহীর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু।  

বক্তব্যের শুরুতে তিনি নেতাকর্মীদের হলুদ ক্যাপ হাতে নিয়ে উঁচু করে ধরতে বলেন এবং নাড়াতে বলেন। এরপর তিনি সরকারকে হলুদ কার্ড দেখানোর ঘোষণা দেন।

রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলেন, সমাবেশের আগে বলেছিলাম, রাজশাহীর গণসমাবেশে সরকারকে হলুদ কার্ড দেখানো হবে। আজ হলুদ কার্ড দেখালাম, ইনশাল্লাহ ঢাকার সমাবেশে সরকারকে লাল কার্ড দেখানো হবে। যতই বাধা আসুক ১০ ডিসেম্বর ঢাকার সমাবেশে আমরা সরকারকে লাল কার্ড দেখাতে চাই।

এসময় নেতাকর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, শীত উপেক্ষা করে গত তিনদিন যাবৎ আপনারা সমাবেশস্থলে অবস্থান করছেন। এজন্য বিএনপি নেতাকর্মীদের আমি ধন্যবাদ জানাতে চাই।  

দুলু বলেন, গত ১ ডিসেম্বর থেকে মিছিল আর বিক্ষোভে পরিপূর্ণ ছিল এই মাদরাসা ময়দান। সরকার বিএনপির সমাবেশ ঘিরে তিন দিনের পরিবহন ধর্মঘট দিয়েছে। বিএনপি নেতা কর্মীদের ওপর মামলা-হামলা করেই কেবল ক্ষান্ত হয়নি, সমাবেশের বক্তব্য যাতে গণমাধ্যমে দেখানো না যায় সেজন্য ইন্টারনেট সংযোগ পর্যন্ত বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে।

রাজশাহীর এই নেতা বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন খেলা হবে। আমি তাকে বলতে চাই, খেলা হবে। তাকে জিজ্ঞেস করতে চাই, কোন মাঠে খেলা হবে। পুলিশ-র‍্যাব রেখে আসেন, সমান মাঠে খেলা হবে। ঘোষণা দেন, আমরা প্রস্তুত আছি।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি, নির্বাচনকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার, জ্বালানি তেল, চাল-ডালসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি, পুলিশ ও সন্ত্রাসীদের গুলিতে দলীয় নেতাকর্মী হত্যা, হামলা এবং মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে রাজশাহীতে এই বিভাগীয় গণসমাবেশ আয়োজন করেছে বিএনপি।  

রাজশাহীতে এটাই বিএনপির সর্বশেষ বিভাগীয় গণসমাবেশ। এর আগে ২০১৯ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর রাজশাহীতে বিএনপির সর্বশেষ বিভাগীয় মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।  

গণসমাবেশে সভাপতিত্ব করেন, রাজশাহী মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট বীর মুক্তিযোদ্ধা এরশাদ আলী ঈসা।  

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন- বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।  

এছাড়াও বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, সাবেক বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী ও বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, সেলিনা রহমান, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মীর হেলাল উদ্দীনসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় শীর্ষ নেতারা বক্তব্য রাখেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৩, ২০২২
এসএস/এনএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa