ঢাকা, সোমবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ শাবান ১৪৪৫

অফবিট

সততার নিদর্শন দেখালেন সিএনজি চালক বাছিত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩
সততার নিদর্শন দেখালেন সিএনজি চালক বাছিত

সুনামগঞ্জ: বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রুয়ারি) ভোরে জেলা শহরের আব্দুর জহুর সেতু থেকে সিএনজি দিয়ে মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন নিজ বাড়ি তাহিরপুর উপজেলার মধ্য তাহিরপুর আসেন। আসার পথে সিএনজিতেই ড্রাইভিং লাইসেন্স, মূল্যবান কাগজপত্র ও নগদ টাকাসহ মানিব্যাগটি ফেলে রেখে যান।

সিএনজি চালক যাত্রী নিয়ে তাহিরপুর উপজেলায় আসার পর সব যাত্রী নিজ নিজ মালামাল নিয়ে বাড়ি চলে যান। এরপর সিএনজি চালক দেখেন একটি মানিব্যাগ পড়ে আছে।

মানিব্যাগে থাকা নগদ ও ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং মূল্যবান কাগজপত্রসহ মানিব্যাগটি নিজের কাছে রেখে অনেক খোঁজাখুঁজি করে সেদিনই বিকেলে মালিকের সন্ধান পান সিএনজি চালক। পরে সব কিছু সঠিকভাবে ফেরত দিয়ে দেন তিনি।

সততার দৃষ্টান্ত স্থাপন করা সিএনজি চালকের নাম বাছিত মিয়া। তিনি সুনামগঞ্জ জেলার ওয়েজখালীর নয় নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা।

নিজের হারিয়ে যাওয়া জিনিসপত্র ফেরত পেয়ে মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন জানান, ভোরে সুনামগঞ্জ-থ ১১-২৮৫৪ নম্বর সিএনজি যোগে তাহিরপুর আসার পথে ভুলে আমার নগদ ১৪ হাজার ৪০০ টাকা, ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং  মূল্যবান কাগজপত্রসহ মানিব্যাগটি সিএনজিতে রেখে বাড়ি চলে আসি। পড়ে  সিএনজি চালক বাছিত ভাই আমার সবকিছু আমার খোঁজ খবর নিয়ে বিকেলে আমার হাতে তুলে দেন। আল্লাহর কাছে তার জন্য দোয়া কামনা করি।

সিএনজি চালক বাছিত মিয়া জানান, মানিব্যাগে থাকা টাকাসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র তিনি ভুলে রেখে গেছেন। আমার দায়িত্ব ছিল মালিককে তার জিনিস বুঝিয়ে দেওয়া। মানিব্যাগটি ফেরত দিতে পেরে আমার ভালো লাগছে।

বাংলাদেশ সময়: ২১২৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩
এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।