ঢাকা, সোমবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২০ মে ২০২৪, ১১ জিলকদ ১৪৪৫

অফবিট

দিল্লিতে হোটেলে ২৩ লাখ রুপি বাকি রেখে পালাল প্রতারক

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৪৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৭, ২০২৩
দিল্লিতে হোটেলে ২৩ লাখ রুপি বাকি রেখে পালাল প্রতারক

ভারতের রাজধানী দিল্লির পাঁচতারা একটি হোটেলে ২৩ লাখ রুপি বিল বাকি রেখে পালিয়ে গেছেন একজন প্রতারক।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি

জানা গেছে, ওই প্রতারক ২০২২ সালের আগস্টে দিল্লির লীলা প্যালেস হোটেলে উঠেছিলেন। তিনি নিজেকে মুহাম্মদ শরিফ নামে পরিচয় দিয়েছিলেন। তিনি নাকি আরব আমিরাতের রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ লোক। তার সঙ্গে শেখ ফালাহ বিন জায়েদ আল নাহিয়ানের সুসম্পর্ক রয়েছে। ব্যাবসায়িক কাজে ভারতে গেছেন তিনি।

প্রতারক শরিফ ওই হোটেলে গত বছরের ১ আগস্ট থেকে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত প্রায় চার মাস অবস্থান করেন। এ সময় পর্যন্ত ৩৫ লাখ রুপির সেবা গ্রহণ করেন। এরমধ্যে পরিশোধ করেন মাত্র ১১ লাখ রুপি। আর বাকি রাখেন ২৩ লাখ রুপি। এ বিপুল অর্থ বকেয়া রেখেই পালিয়ে যান তিনি।

কথিত মুহাম্মদ শরিফ হোটেলটির ৪২৭ নম্বর রুমে উঠেছিলেন। প্রায় চার মাস পর হঠাৎ একদিন পালিয়ে যান। যাওয়ার সময় হোটেল ঘর থেকে দামি রুপা ও মুক্তাখচিত পাত্র চুরি করে নিয়ে যান। এছাড়া যাওয়ার আগে দিয়ে যান ২০ লাখ রুপির একটি ভুয়া চেক।

এ বিষয়ে দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে, শরিফ হোটেলে তার একটি বিজনেস কার্ড এবং আরব আমিরাতে থাকার কার্ড দেখিয়েছিলেন। এছাড়া বিশ্বস্ততা অর্জনে হোটেলের কর্মচারীদের সঙ্গে আমিরাতের বিভিন্ন গল্প বলতেন।

পুলিশ এরইমধ্যে তদন্তে নেমেছে। সিসিটিভি দেখে ওই ব্যক্তিকে শনাক্তের চেষ্টা করা হচ্ছে। এছাড়া তার দেওয়া সব পরিচয় ভুয়া বলেও ধারণা করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৪৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৭, ২০২৩
জেডএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।