ঢাকা, শুক্রবার, ২২ আশ্বিন ১৪২৯, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাতীয়

রাজৈরে শিক্ষার্থী হত্যা মামলার আসামিদের গ্রেফতার দাবি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫১ ঘণ্টা, আগস্ট ১৯, ২০২২
রাজৈরে শিক্ষার্থী হত্যা মামলার আসামিদের গ্রেফতার দাবি

মাদারীপুর: মাদারীপুর জেলার রাজৈরে মেধাবী শিক্ষার্থী শাহীন শেখ (২৪) হত্যা মামলায় আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে নিহতের পরিবার।  

শুক্রবার (১৯ আগস্ট) সকালে নিহত শাহীনের গ্রামের বাড়ি রাজৈর উপজেলার বাজিতপুরে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

 

পরিবারের অভিযোগ, গত ০৬ আগস্ট বাড়ির লোকজন অন্যত্র বেড়াতে যাওয়ায় রাতের খাবার খেয়ে ঘরে একা ঘুমিয়ে পড়েন শাহীন শেখ। পরদিন ০৭ আগস্ট রোববার সকালে রাজৈর উপজেলার চৌরাশি এলাকার একটি বাগান থেকে শাহীনের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। শত্রুতার জেরে বেশ কিছুদিন ধরে শাহীনকে হত্যার ঘোষণা দিয়ে আসছিল প্রতিপক্ষের লোকজন। এরই জেরে বাড়ি থেকে শনিবার রাতে তুলে নিয়ে গিয়ে কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা করা হয় শাহীনকে। এই ঘটনায় ০৮ আগস্ট নিহত শাহীনের মা হামিদা বেগম বাদী হয়ে রাজৈর থানায় ১৪ জনের নামে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।  

এ ঘটনায় ওইদিনই চৌরাশী এলাকার চেরাগ আলী হাওলাদারের ছেলে মাইনউদ্দিন হাওলাদারকে (৪৫) আটক করে পুলিশ। তবে এর পরে আর কোনো আসামি গ্রেফতার হয়নি।

নিহত শাহীনের বড় বোন রোকসানা ইয়াসমিন সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে বলেন, 'হত্যাকাণ্ডের দুই সপ্তাহেও পুলিশ ঘটনার রহস্য বের করতে পারেনি। এমনকি এ ঘটনায় জড়িত কাউকেই গ্রেফতার করতে পারেনি।  

দ্রুত আসামিদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান পরিবারের সদস্যরা।

রাজৈর থানার ওসি (তদন্ত) ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার ঘোষ জানান, তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। শিগগিরই আসামিদের গ্রেফতার করে আদালতে সোর্পদ করা হবে।

জানা যায়, নিহত শাহীন রাজৈর উপজেলার বাজিতপুর গ্রামের মোস্তফা শেখের ছেলে ও মাদারীপুর সরকারি কলেজের ডিগ্রি ২য় বর্ষের ছাত্র ছিল। সে বাজিতপুর এলাকার মুরগি ব্যবসায়ী সোহেল হাওলাদার হত্যা মামলার আসামি ছিল।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩৮ ঘণ্টা, আগস্ট ১৯, ২০২২
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa