ঢাকা, বুধবার, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাতীয়

তুরাগে দগ্ধ ৮ জনের ৭ জনই মারা গেলেন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩১২ ঘণ্টা, আগস্ট ৯, ২০২২
তুরাগে দগ্ধ ৮ জনের ৭ জনই মারা গেলেন

ঢাকা: রাজধানীর তুরাগের কামারপাড়ায় ভাঙারির দোকানে আগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শফিকুল ইসলাম (২৫) নামে দগ্ধ আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ আটজনের মধ্যে সাতজনের মৃত্যু হলো।

মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) রাত সাড়ে ৮টার দিকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শফিকুল মারা যান। তার শরীরের ৮০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছিল।

মৃত শফিকুল নীলফামারী জেলার জলঢাকা থানার মজিবর রহমানের ছেলে। তিনি তুরাগের কামারপাড়া এলাকায় থাকতেন। রিকশা মেরামতের কাজ করতেন।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে শফিকুলের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) বাচ্চু মিয়া।

তুরাগের কামারপাড়া এলাকায় অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ বাকি একজন বার্ন ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তার অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

তিনি আরও জানান, তুরাগের কামারপাড়া এলাকায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় আটজন দগ্ধ হয়েছিলেন। এই শফিকুলকে নিয়ে এ পর্যন্ত সাত জনের মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় ৩৫ শতাংশ পোড়া নিয়ে শাহীন নামে আরও একজন চিকিৎসাধীন আছেন।

গত শনিবার (০৬ আগস্ট) দগ্ধ ৮ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। ওই দিন রাতেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় নূর হোসেন (৬০), গাজী মাজহারুল ইসলাম (৪৫) ও আলমগীর হোসেন আলম (২৩) মারা যান।

আরও পড়ুন: তুরাগে ভাঙারি দোকানে অগ্নিকাণ্ড, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩

বাংলাদেশ সময়: ২৩০৫ ঘণ্টা, আগস্ট ০৯, ২০২২
এজেডএস/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa