ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৭ জিলহজ ১৪৪৩

জাতীয়

সপ্তাহের শেষ কর্মদিবসেও তীব্র যানজট

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২৩ ঘণ্টা, মে ২৬, ২০২২
সপ্তাহের শেষ কর্মদিবসেও তীব্র যানজট ছবি: রাজীন চৌধুরী

ঢাকা: রাজধানীতে এখন প্রতিদিনের সমস্যা যানজট। বিভিন্ন সড়কে তীব্র যানজট লেগেই থাকছে।

কর্মজীবী মানুষের ভোগান্তির যেন শেষ নেই। আজ বৃহস্পতিবার সপ্তাহের শেষ কর্মদিবসেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। প্রতিদিন ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে ঢাকার যানজট। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়ছেন যাত্রীরা।  

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়।  

সপ্তাহের শেষ কর্মদিবসে রাজধানীজুড়ে অসহনীয় রূপ ধারণ করেছে যানজট। সামান্য পথ অতিক্রম করতে সময় লাগছে কয়েক ঘণ্টা। ধীরগতিতে চলা যানবাহনে বসে গরমে হাঁসফাঁস করেছেন বিভিন্ন বয়সী যাত্রীরা।  

সকালে বিমানবন্দর সড়ক, ডিআইটি সড়ক,  খিলগাঁও রেলগেট, বাসাবো, মালিবাগ, নতুন বাজার, গুলিস্তান, ফকিরাপুল, পল্টন, শাহবাগ, কাকরাইল, বাংলামটর, কাওরানবাজার, বনানী, মহাখালী, মিরপুর, ফার্মগেটসহ বিভিন্ন এলাকায় তীব্র যানজট দেখা গেছে।

মিরপুর ১২ নম্বর এলাকার বাসিন্দা চাকরিজীবী শামীম আহমেদ। সকাল সাড়ে ৯ টায় পল্টনের কর্মস্থলে যাওয়ার জন্য বাসা থেকে বের হন । তিনি বলেন, রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় যানজট ছিল চোখে পড়ার মতো। সকালে বাসা থেকে বের হয়েছি। অফিস যাওয়ার পথে যানজট এড়াতে আমি রোকেয়া সরণির সড়ক ব্যবহার করিনি। এখানে কাজীপাড়া শেওড়াপাড়ায় সব সময় তীব্র যানজট লেগে থাকে। যানজট এড়াতে ৬০ ফুট সড়ক হয়ে পল্টনের অফিসে এসেছি।  

তিনি আরও বলেন, রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার রাস্তা খোঁড়াখুঁড়ি, মেট্রোরেল নির্মাণসহ গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পের কাজে যানবাহন চলাচল বিঘ্ন হচ্ছে। এছাড়াও রাস্তায় ধীরগতির যানবাহন, উল্টোপথে গাড়ি চলাসহ নানা কারণে যান চলাচলে প্রতিবন্ধকতা তৈরি হচ্ছে। আবার সড়কের দুপাশে অবৈধ যানবাহন পার্কিং ও ধারণ ক্ষমতার বেশি যানবাহনকে রেজিস্ট্রেশন দেওয়াও যানজটের অন্যতম কারণ।  

বিকল্প পরিবহনের বাস চালক মো. আসলাম হোসেন বলেন, রোকেয়া সরণির সড়কের বেহাল দশার কারণে আমরা আগে যেখানে মিরপুর থেকে মতিঝিল ৫ থেকে ৬ বার আসা যাওয়া করতাম। জ্যামের কারণে বর্তমানে ৩ থেকে ৪ বারের বেশি মিরপুর থেকে মতিঝিল ট্রিপ মারতে পারি না। জ্যামের কথা আর কী বলব। সকাল, দুপুর ও রাত সব সময় লেগে থাকছে জ্যাম।

কাজীপাড়া থেকে মালিবাগ আসা তানভীর আলম বাংলানিউজকে বলেন, সপ্তাহের শেষ কর্মদিবস হওয়ায় আজকে রাজধানীতে সকাল থেকেই প্রচণ্ড যানজট ছিল। বুধবারের তুলনায় বৃহস্পতিবার সড়কে যানজট বেশি। মিরপুর থেকে সকাল সাড়ে ৮ টায় বাসে উঠি, মালিবাগ পৌঁছেছি সাড়ে ১০ টায়। অন্যান্য দিন আমি সাড়ে নয়টার মধ্যে মালিবাগ অফিসে চলে আসি।  

জ্যামের কারণে প্রতিনিয়ত কর্মঘণ্টা নষ্ট হচ্ছে। এই জ্যামের জন্য কোনো কাজ সময়মতো করা যাচ্ছে না।  

বাংলাদেশ সময়: ১৫২০ ঘণ্টা, মে ২৬, ২০২২
এমএমআই/এসআইএস

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa