ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২১ মে ২০২৪, ১২ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

২০২১ সালে পারিবারিক নির্যাতনে নিহত ৩৭২, আত্মহত্যা ১৪২

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০২১
২০২১ সালে পারিবারিক নির্যাতনে নিহত ৩৭২, আত্মহত্যা ১৪২

ঢাকা: ২০২১ সালে পারিবারিক নির্যাতনের শিকার হয়ে ৩৭২ জন নারী মারা গেছেন ও ১৪২ জন নারী আত্মহত্যা করেছেন বলে জানিয়েছে আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক)।  

শুক্রবার (৩১ ডিসেম্বর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে ‘বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি ২০২১: আইন ও সালিশ কেন্দ্রের পর্যালোচনা’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানানো হয়।

আইন ও সালিশ কেন্দ্রের প্রতিবেদনে বলা হয়, এ বছর পারিবারিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন মোট ৬৪০ জন নারী। যার মধ্যে নির্যাতনের কারণে মারা যান ৩৭২ জন ও আত্মহত্যা করেন ১৪২ জন।  

উল্লেখ্য ২০২০ সালে পারিবারিক নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন ৫৫৪ জন নারী।

অন্যদিকে ২০২১ সালে যৌতুকের জন্য নির্যাতনের শিকার হয়েছেন মোট ২১০ জন নারী। এর মধ্যে শারীরিক নির্যাতনের পর হত্যার শিকার হন ৭২ নারী ও আত্মহত্যা করেন ১৩ জন নারী।

সালিশের মাধ্যমে নির্যাতন
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আসকের তথ্য সংরক্ষণ ইউনিটের হিসাব মতে, ২০২১ সালে সালিশ ও ফতোয়ার মাধ্যমে ১২ জন নারী নির্যাতনের শিকার হন। এর মধ্যে সালিশে শারীরিক নির্যাতনের শিকার হন তিনজন নারী ও নির্যাতন পরবর্তী সময়ে আত্মহত্যা করেন দুজন নারী।  

উল্লেখ্য ২০২০ সালে সালিশ ও ফতোয়ার শিকার হয়েছিলেন অন্তত আটজন নারী।

সংবাদ সম্মেলনে ২০২১ সালে বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে মূল প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন আসকের জ্যেষ্ঠ সমন্বয়কারী আবু আহমেদ ফয়জুল কবির ও সহকারী সমন্বয়কারী অনির্বাণ সাহা।

সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন আসক নির্বাহী কমিটির মহাসচিব মো. নূর খান। এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- আসকের নির্বাহী পরিচালক গোলাম মনোয়ার কামাল ও পরিচালক নীনা গোস্বামী।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০২১
এমইউএম/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।