ঢাকা, সোমবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

খুলনায় সেই ৩ খুনের ঘটনায় মামলা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৪৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০২১
খুলনায় সেই ৩ খুনের ঘটনায় মামলা ছবি: সংগৃহীত

খুলনা: খুলনার কয়রা উপজেলার বাগালী ইউনিয়নের বামিয়া গ্রামে পুকুর থেকে বাবা-মা ও মেয়ের মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) রাতে নিহত হাবিবুর রহমানের মা কোহিনুর খানম বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে এ মামলা করেছেন।


এর আগে, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে মরদেহগুলো পুকুর থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহতরা হলেন- উপজেলার বাগালী ইউনিয়নের বামিয়া গ্রামের হাবিবুর রহমান ওরফে হাবিবুল্লাহ (৩৩), তার স্ত্রী বিউটি খাতুন (২৫) ও মেয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী হাবিবুন্নাহার টুনি (১৩)।

এদিকে মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বিকেলে ৪ জনকে পুলিশ হেফজতে নেওয়া হয়েছে। তারা হলেন- সুলতানা (২৫), নাঈম (২২), জিয়া (২৭) ও কিবরাল (৩০)।

হাবিবুর রহমানের বড় ভাই মনিরুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, আমার ভাইয়ের কোনো শত্রু ছিল না। কোন রাজনৈতিক দলের সঙ্গেও  সম্পৃক্ততা ছিল না তার। কি কারণে পরিবারসহ তাকে হত্যা করা হয়েছে তা আমরা বুঝতে পারছি না।

কয়রা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রবিউল হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, হত্যার রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা চলছে। এখনো কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতদের মরদেহগুলো খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

কয়রা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো. শাহাদাত হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, নিহতদের মাথা ও মুখে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পরিকল্পিতভাবে হত্যার পর পুকুরে মরদেহ গোপনের চেষ্টা করা হয়েছে। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে।

বাংলাদেশ সময়: ২৩৪৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০২১
এমআরএম/জেডএ

....খুলনায় বাবা-মা ও মেয়েকে হত্যা

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa