ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

যেভাবে মণ্ডপে কোরআন রাখা হয়

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৪৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ২১, ২০২১
যেভাবে মণ্ডপে কোরআন রাখা হয়

কুমিল্লা: মণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনায় ১২টি সিসিটিভি ফুটেজের বিশ্লেষণ বাংলানিউজের হাতে এসেছে।  

ফুটেজে দেখা যায়, ১২ অক্টোবর রাত ১০টা ৫৮মিনিটে দারোগা বাড়ি মসজিদে প্রবেশ করেন ইকবাল হোসেন।

এসময় মাজারের খেদমতকারী ফয়সাল ও হুমায়ুন মসজিদে ছিলেন।  

এরপর রাত ১১টার দিকে বেরিয়ে যান ইকবাল। রাত ২টা ১২ মিনিটে পুনরায় মসজিদে প্রবেশ করে দানবাক্সের উপর থেকে কোরআন শরিফ সংগ্রহ করেন তিনি। এরপর ২টা ১৪ মিনিটে সেখান থেকে বেরিয়ে যান। ২টা ২৭ মিনিটে এসে আবার কোরআন শরিফটি হাতে নেন তিনি। কিছুক্ষণ এদিক-সেদিক পায়চারী করে আবার বাইরে বেরিয়ে পড়েন।  

মসজিদ থেকে বের হয়ে পূজামণ্ডপের দিকে অগ্রসর হয়ে জগন্নাথ মন্দিরের দিকে এগিয়ে যান ইকবাল। তারপর চকবাজারের স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক শাখা থেকে পূবালী ব্যাংকের দিকে অগ্রসর হন। তখন রাত ২টা ৪২ মিনিট। তারপর তিনি কিছুক্ষণ পূবালী ব্যাংক মোড়ে অবস্থান করেন। তখন ভিডিওতে আরও দুইজনকে দেখা যায়। ইকবাল পেছনের দিকে হাত রেখে তাদের সঙ্গে কথা বলেন।  

পূবালী ব্যাংক মোড় থেকে এসআইবিএল ব্যাংকের চকবাজার শাখায় অগ্রসর হন ইকবাল। সেখান থেকে যান চার্টার্ড ব্যাংকের দিকে। এরপর পুনরায় জগন্নাথ মন্দির রোডে যাত্রা করেন ইকবাল। এরপর উল্টো দিকে হাঁটা ধরেন তিনি। হেঁটে জগন্নাথ মন্দির থেকে নানুয়ার দিঘির পাড়ের পূজামণ্ডপের দিকে অগ্রসর হন। তারপর দেখা যায় তার হাতে কোরআন শরিফটি নেই। এরপর হনুমানের গদা নিয়ে হাঁটতে থাকেন তিনি। দুই মিনিট পর ৯৯৯-এ কল করা ইকরামকে দেখা যায়। এবার আবার দারোগা বাড়ি মসজিদে প্রবেশ করেন ইকবাল। তখন তার হাতে গদাটিও ছিল না। এসময় মসজিদে একজনকে ঘুমাতে দেখা যায়।

বাংলাদেশ সময়: ২২৪৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২১, ২০২১
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa