ঢাকা, শনিবার, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮, ৩১ জুলাই ২০২১, ২০ জিলহজ ১৪৪২

জাতীয়

মাগুরায় শিক্ষক হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪৬ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০২১
মাগুরায় শিক্ষক হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন মানববন্ধন।

মাগুরা: মাগুরার মহম্মদপুরে মসজিদের ভেতর প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুতর আহত এক স্কুলশিক্ষক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়ার ঘটনার বিচার দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (২১ জুন) বিকেলে মহম্মদপুর সদরে শিক্ষক পরিবারের ব্যানারে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এতে উপজেলার প্রাথমিক, মাধ্যমিক, কলেজ ও মাদ্রাসার কয়েকশ শিক্ষক অংশ নেন।

পরে নৃশংস হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবিতে মহম্মদপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রামানন্দ পালের কাছে শিক্ষক প্রতিনিধিরা স্মারকলিপি দেন।

গত শনিবার বিকেলে মহম্মদপুর উপজেলার পলাশবাড়ীয়া গ্রামের একটি মসজিদে হামলার শিকার হন আলাউদ্দিন মোল্লা ওরফে পাখি মাস্টার (৫৫)। পরে রাত ১১টার দিকে তিনি ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

নিহত ব্যক্তি পলাশবাড়ীয়া গ্রামের বাসিন্দা এবং পলাশবাড়ীয়া পূর্ব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। তার পরিবারের সদস্যরা দাবি করেছেন, শত্রুতার জেরে এ হামলা চালানো হয়।

নিহতের পরিবারের সদস্য ও স্থানীয় ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, গতকাল বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে পলাশবাড়ীয়া উত্তর পূর্ব পাড়া জামে মসজিদে আসরের নামাজ আদায় করতে যান শিক্ষক আলাউদ্দিন মোল্লা। মসজিদের ভেতরই তার ওপর হামলা চালান প্রতিপক্ষের লোকজন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পরে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শনিবার রাত ১১টায় সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই শিক্ষকের মৃত্যু হয়।

নিহতের ভাই মো. ফিরোজ এলাহীর ভাষ্য, ভাইয়ের সঙ্গে পুকুরের পাড় নিয়ে আগে থেকেই প্রতিপক্ষের বিরোধ চলে আসছিল। এরই জেরে বাঁশি মোল্লা, রবিউল মোল্লা, পিকুল মোল্লা, মুকুল মোল্লাসহ কয়েকজন মসজিদে ভাইয়ের ওপর হামলা চালান। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করেন লোকজন।

মহম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) কর্মকর্তা তারক বিশ্বাস বলেন, এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি। তবে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে জড়িত সন্দেহে তিনজনকে আটক করা হয়েছে।  

ওসি বলেন, আটক তিনজনের সবাই জড়িত কি না, এখনো নিশ্চিত নই। তবে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তদন্তের স্বার্থে তাৎক্ষণিকভাবে কারও পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না। একই সঙ্গে ঘটনায় জড়িত অন্যদের ধরতে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৫ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa