ঢাকা, সোমবার, ১১ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৬ জুলাই ২০২১, ১৫ জিলহজ ১৪৪২

জাতীয়

প্রধানমন্ত্রী-দেশবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানালো ত্ব-হার পরিবার

মাহফুজুল ইসলাম বকুল, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১০৩ ঘণ্টা, জুন ১৯, ২০২১
প্রধানমন্ত্রী-দেশবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানালো ত্ব-হার পরিবার

রংপুর: আলোচিত ইসলামি বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনানকে নিরাপদে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করায় প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও দেশবাসীর কাছে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন আবু ত্ব-হার মামা আমিনুল ইসলাম।

শুক্রবার (১৮ জুন) রাত পৌনে বারোটার দিকে রংপুর আদালত চত্বরে সাংবাদিকদের সামনে অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে এ কৃতজ্ঞতা জানান।

 

তিনি বলেন, আলহামদুলিল্লাহ আমরা তাকে ফিরে পেয়েছি। এজন্য মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে শোকরিয়া জানাই। আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। ত্ব-হার নিখোঁজের ঘটনায় ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তার খোঁজ নেওয়ার কথা তিনি জানিয়েছিলেন। এই সময়ের মধ্যেই তাকে আমরা পেয়েছি।  

তিনি আরও বলেন, আমি দেশবাসীর কাছে চিরকৃতজ্ঞ যে সবাই এত ভালোবাসা দেখিয়েছেন। তার বিষয়ে সবাই দোয়া করেছেন। খোঁজ-খবর নিয়ে এবং আমাদের পাশে থেকেছেন। আপনাদের সবার মঙ্গল হোক।

এসময় সবার কাছে আবু ত্ব-হার জন্য দোয়া কামনা করেন তিনি।

আবু ত্ব-হার মামা আমিনুল ইসলাম বলেন, আদালত থেকে পরিবারের অভিভাবক হিসেবে আমাদের ডেকে পাঠানো হয়েছিল। আমি ও আবু ত্ব-হার মা অভিভাবক হিসেবে এসেছি। আমাদের জিম্মায় তাকে হস্তান্তর করেছে পুলিশ।

এর আগে রাত সাড়ে ৯টার দিকে রংপুর চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কে এম হাফিজুর রহমানের আদালতে নেওয়া হয় তাদের। যেহেতু থানায় জিডি করা হয়েছিল তাই আদালতে ১৬৪ ধারায় তাদের জবানবন্দি নেন বিচারক।

পরে আবু ত্ব-হাকে তার মা ও মামা আমিনুল ইসলামের জিম্মায়  হস্তান্তর করা হয়।

এর আগে দুপুরে জুমার নামাজের সময় নিখোঁজ হওয়ার আটদিন পর রংপুরের চারতলা মোড়ে শ্বশুরবাড়িতে ফিরে আসেন আদনান। সেখান থেকে বিকেল ৩টার দিকে মেট্রোপলিটন কোতোয়ালি থানা পুলিশ তাকে হেফাজতে নিয়ে প্রথমে কোতোয়ালি থানায় ও পরে গোয়েন্দা কার্যালয়ে নেয়।

পরে গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে আদনান ব্যক্তিগত কারণে আত্মগোপন করেছিলেন বলে জানায় ডিবি পুলিশ। রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে উপপুলিশ কমিশনার আবু মারুফ হোসেন সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ব্যক্তিগত কারণে আদনান, তার দুই সঙ্গী ও ড্রাইভার আত্মগোপনে ছিলেন।

গাইবান্ধায় তার বন্ধু সিয়ামের বাড়িতে এতদিন অবস্থান করছিলেন। যেহেতু ব্যক্তিগত বিষয় তাই সেটি প্রকাশ্যে আনছি না আমরা। তবে এর পিছনে কোনো অপরাধ নেই বলে আদনান পুলিশকে জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, নিখোঁজের দিনই তিনি ঢাকা থেকে গাইবান্ধায় আসেন। বাকি তিনজনকে বুঝিয়ে, অনুরোধ করে ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে তারা আত্মগোপনে ছিলেন। চারজনই এতদিন একসঙ্গে ছিলেন।  

ব্যক্তিগত কারণটা কী- এ প্রশ্নের জবাবে আবু মারুফ হোসেন বলেন,  যার যেটা ব্যক্তিগত বিষয় সেটা এভাবে প্রকাশ করতে পারি না। সেটা একান্ত তার ব্যক্তিগত। তার বউ যে মুক্তিপণের কথা বলেছেন সেটাও কোনো ফ্রড করেছে। এ বিষয়ে সুযোগ নেওয়ার চেষ্টা করেছে।  

এর আগে গত আটদিন ধরে চার সঙ্গীসহ নিখোঁজ ছিলেন আদনান ত্ব-হা। এ নিয়ে দেশব্যাপী তুমুল আলোচনা-সমালোচনার পর আজ তার খোঁজ মেলে।

**‘সরকারকে বিব্রত করতে ত্ব-হা এটা করেছেন কিনা যাচাই করছি’
**জবানবন্দি দিয়ে পরিবারের কাছে ফিরলেন ত্ব-হা
**আদালতে নেওয়া হলো আবু ত্ব-হাকে

বাংলাদেশ সময়: ০০৫৮ ঘণ্টা, জুন ১৯, ২০২১
এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa