ঢাকা, শনিবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

রংপুরে এএসআইয়ের গণধর্ষণ মামলা পিবিআইতে হস্তান্তর 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০২০
রংপুরে এএসআইয়ের গণধর্ষণ মামলা পিবিআইতে হস্তান্তর  আটক মেঘলার ভাড়া বাসা। ছবি: বাংলানিউজ

রংপুর: স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগে রংপুরে মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সহকারী উপ-পরিদর্শকের (এএসআই) বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।  

সোমবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে অধিকতর তদন্তের স্বার্থে মামলাটি পিবিআইতে স্থানান্তর করা হয়।

 

রংপুর পিবিআইয়ের পুলিশ সুপার (এসপি) জাকির হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এছাড়াও অভিযুক্ত এএসআই রাহেনুলকে পিবিআইয়ের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।  

এর আগে এক স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগে ওই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা হয়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে নেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় সহায়তার অভিযোগে মেঘলা ও সুরভি ওরফে শম্পা নামে দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।  

ভুক্তভোগীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, রংপুর মহানগরীর হারাগাছ থানার ময়নাকুঠি কচুটারি এলাকার নবম শ্রেণির এক ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন মেট্রোপলিটন ডিবি পুলিশের এএসআই রাহেনুল ইসলাম। পরিচয়ের সময় রাহেনুল তার ডাক নাম রাজু বলে জানান ওই ছাত্রীকে। প্রেমের সম্পর্কের সূত্র ধরে তিন দিন আগে ওই ছাত্রীকে ক্যাদারের পুল এলাকার ডা. শহিদুল্লাহ মিয়ার ভাড়াটিয়া মেঘলা বেগমের বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে রাহেনুল। পরে গতকাল রোববার ভাড়াটিয়া মেঘলার সহায়তায় আরও দুজন তাকে গণধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়লে বিষয়টি জানাজানি হয়। পরে রাত সাড়ে ৮টার দিকে পুলিশ তাকে ওই বাড়ি থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ সময় মেঘলা বেগমকে আটক করে পুলিশ। পরে রাতে আরেক সহযোগী সুরভিকেও আটক করা হয়। এছাড়াও অভিযুক্ত রাহেনুলকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।  
 
এ ঘটনায় ছাত্রীর বাবা পুলিশ সদস্য রাজুসহ দু'জনের নাম উল্লেখ করে গণধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। পরে রাত পৌনে ১২টায় পুলিশ অসুস্থ ছাত্রীকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারের ভর্তি করে।

রংপুর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর পুলিশ সুপার (এসপি) জাকির হোসেন বলেন, আমরা অতি গুরুত্বের সঙ্গে মামলাটি তদন্ত করছি। ইতোমধ্যে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  

** গণধর্ষণ মামলার আসামি এএসআই রাহেনুল সাময়িক বরখাস্ত
** এএসআইয়ের নেতৃত্বে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

বাংলাদেশ সময়: ১৭১৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০২০
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa