ঢাকা, বুধবার, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাতীয়

সিলেট এমসি কলেজে ধর্ষণ: রনির পর গ্রেফতার রবিউল

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩১০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০
সিলেট এমসি কলেজে ধর্ষণ: রনির পর গ্রেফতার রবিউল আসামি রবিউল/ছবি: সংগৃহীত

হবিগঞ্জ: সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ মামলার ৫ নম্বর এজাহার নামীয় আসামি রবিউলকে হবিগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর প্রায় ঘণ্টাখানেক আগে মামলার আরেক আসামি শাহ মাহবুবুর রহমান ওরফে রনি র‍্যাবের হাতে আটক হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

 

জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) রোববার (২৭ নভেম্বর) রাত সাড়ে নয়টায় জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ থেকে রবিউলকে গ্রেফতার করে।

হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসেন বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রবিউল সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার জগদল ইউনিয়নের বড় নগদী গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। তিনি বলেন, রবিউল ধর্ষণ মামলার ৫ নম্বর এজাহার নামীয় আসামি। তাকে গ্রেফতারের ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য পরে জানানো হবে।

দক্ষিণ সুরমার এক নবদম্পতি গত শুক্রবার বিকেলে প্রাইভেটকারে এমসি কলেজে বেড়াতে যান। বিকেলে এমসি কলেজের ছাত্রলীগের ছয়জন নেতাকর্মী স্বামী-স্ত্রীকে ধরে ছাত্রাবাসে নিয়ে প্রথমে মারধর করেন। পরে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণ করেন। ছাত্রলীগ নেতাদের প্রত্যেকেই ছাত্রাবাসে থাকেন। তারা টিলাগড় কেন্দ্রীক আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট রনজিত সরকার গ্রুপের অনুসারী।

এর আগে রোববার সকালে তরুণী ধর্ষণ মামলার আসামি অর্জুন লস্করকে (২৫) গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) হবিগঞ্জের মাধবপুর থেকে গ্রেফতার করে। একইদিন সুনামগঞ্জের ছাতক থেকে গ্রেফতার হয় সাইফুর রহমানকে (২৮)। আর রাতে আরেক আসামি শাহ মাহবুবুর রহমান ওরফে রনি (২৫) র‌্যাবের হাতে আটক হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। সবমিলিয়ে ধর্ষণ মামলায় এনিয়ে চারজন আসামি গ্রেফতার হলেন।

বাংলাদেশ সময়: ২৩১০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa