ঢাকা, বুধবার, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাতীয়

সৌদিতে রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশি পাসপোর্ট থাকলে পুনরায় ইস্যু

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৩৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০
সৌদিতে রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশি পাসপোর্ট থাকলে পুনরায় ইস্যু ছবি: বাদল

ঢাকা: সৌদিতে অবস্থান করা কোনো রোহিঙ্গার যদি আগে বাংলাদেশি পাসপোর্ট থেকে থাকে তাহলেই সেটা পুনরায় ইস্যু করা হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তবে যাদের কোনো বাংলাদেশি পাসপোর্ট নেই, তাদেরটা পুনরায় ইস্যু হবে না বলে জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি একথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, আশির দশকে বাংলাদেশ থেকে অনেক রোহিঙ্গা নিয়ে গিয়েছিল সৌদি আরব। এখন সেসব রোহিঙ্গাদের কোনো ডকুমেন্ট নেই। তাদের ছেলেমেয়েরা সেখানেই জন্ম নিয়েছে। সেখানেই বেড়ে উঠেছে। তারা বাংলাও জানে না। সৌদি সরকার তাদের জন্য পাসপোর্ট দিতে আমাদের অনুরোধ করেছে। কেননা সৌদি আরব তার দেশে কোনো রাষ্ট্রহীন লোক রাখে না।

তিনি বলেন, আমরা সৌদি আরবকে জানিয়েছি কোনো রোহিঙ্গার বাংলাদেশি পাসপোর্ট থেকে থাকলেই আমরা সেটা পুনরায় ইস্যু করতে পারি, অন্যথায় নয়। তবে সৌদি আরব জানিয়েছে, পাসপোর্ট ইস্যু না করা মানেই তাদের বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো নয়।

ড. মোমেন বলেন, সৌদি আরবের জেলে ৪৬২ জন রোহিঙ্গা আছেন। আমরা মিশন থেকে যাচাই-বাছাই করে দেখেছি, তাদের মধ্যে ৭০- ৮০ জনের বাংলাদেশের পাসপোর্ট আছে। তাই কেবল এই পাসপোর্টধারীদেরই ফেরত আনা যেতে পারে।

সৌদি থেকে রোহিঙ্গাদের ফেরত না আনলে বাংলাদেশের প্রবাসীদের ফেরত পাঠানো হবে- এ বিষয়ে জানতে চাইলে ড. মোমেন বলেন, এটা দুষ্টু লোকজন প্রচার করছে, এটা ঠিক নয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩২ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০
টিআর/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa