ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ বৈশাখ ১৪৩১, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৬ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

বছরের শেষদিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা, বাড়ছে শীত

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৩৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৮
বছরের শেষদিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা, বাড়ছে শীত অধিদফতরের ওয়েবসাইটে দেওয়া সোমবারের আবহাওয়ার চিত্র

ঢাকা: দেশে নির্বাচনের উত্তাপ থাকলেও পুরনো বছরের শেষ এবং নতুন বছরের শুরুতে তীব্র শৈত্যপ্রবাহে কাঁপছে উত্তরাঞ্চল। বছরের শেষ দিনে পঞ্চগড়ে এ মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমেছে।

এছাড়া দেশের অন্যত্র মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে।  

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, এই অবস্থা আগামী তিন থেকে চার দিন অব্যাহত থাকবে।

ফলে থার্টি ফাস্ট নাইট এবং বছরের শুরুর দিনটিও শীত অনুভূত হতে পারে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পঞ্চগড় জেলায় তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও টাঙ্গাইল, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, সীতাকুণ্ড, শ্রীমঙ্গল, নওগাঁ, খুলনা, যশোর, চুয়াডাঙ্গা এবং বরিশাল অঞ্চলসহ রংপুর বিভাগের অবশিষ্টাংশ ও মংয়মনসিংহ বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কিছু জায়গায় অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়া অফিসের আবহাওয়াবিদ বজলুর রশীদ বাংলানিউজকে বলেন, আবহাওয়ার এ অবস্থা তিন-চারদিন অব্যাহত থাকবে। তবে তাপমাত্রা বাড়তে সময় লাগবে।

আবহাওয়া অফিস জানায়, সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে। দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

সোমবার (৩১ ডিসেম্বর) পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন ৫ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে বলে জানায় আবহাওয়া অফিস। আবহাওয়াবিদ বজলুর রশীদ জানান, এটিই এ মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।

এছাড়া দিনাজপুরে ৭.৫ ডিগ্রি, ডিমলায় ৮ ডিগ্রি, রাজারহাটে ৮.১, ময়মনসিংহে ৮.৮, রাজশাহীতে ৯, রংপুরে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।  

এদিন বিভাগীয় শহর বরিশালে ৯.৭, খুলনায় ১০, সিলেটে ১২.৮, ঢাকায় ১২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অফিস।  

আগামী ৭২ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।  

আবহাওয়া অধিদফতরের তথ্যানুযায়ী, বাতাসের তাপমাত্রা ৬-৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে হলে তাকে মাঝারি, ৮-১০ ডিগ্রির মধ্যে হলে তাকে মৃদু, আর তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রি নিচে হলে তাকে বলে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৮
এমআইএইচ/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad