ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৩ জুন ২০২৪, ০৫ জিলহজ ১৪৪৫

জাতীয়

কুকি-চিনসহ সব সন্ত্রাসী সংগঠনকে নির্মূলে যৌথবাহিনীর অভিযান অব্যাহত রাখার দাবি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৪৪ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০২৪
কুকি-চিনসহ সব সন্ত্রাসী সংগঠনকে নির্মূলে যৌথবাহিনীর অভিযান অব্যাহত রাখার দাবি

বান্দরবান: বর্তমান সময়ে চলমান পরিস্থিতিতে বান্দরবান জেলায় সশস্ত্র সংগঠন কুকি-চিনের নৈরাজ্যের তীব্র নিন্দা জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) দুপুরে বান্দরবান সদরের একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়।

এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী মো. মজিবর রহমান।

মজিবর রহমান কুকি চিন ন্যাশনাল ফ্রন্টসহ পার্বত্য এলাকার সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের ধিক্কার জানিয়ে বলেন, তাদের এই সন্ত্রাসী কার্যকলাপের কারণে পার্বত্য এলাকার বাঙালিদের পাশাপাশি বেশি ক্ষতি হচ্ছে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জনসাধারণ।

তিনি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে এতদিন ইউপিডিএফ ও জেএসএসের চাঁদাবাজি, গুম, খুন, অপহরণসহ বিভিন্ন নির্যাতনের শিকার হয়ে এলেও বর্তমানে নতুন করে কেএনএফের অভয়ারণ্য সৃষ্টি হয়েছে। কুকি-চিন পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রায় অর্ধেক ভূমি নিয়ে পূর্ণ স্বায়ত্তশাসন ক্ষমতাসহ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে রাজ্য প্রতিষ্ঠা করার পাঁয়তারা করছে। তারই ধারাবাহিকতায় বান্দরবানে একের পর এক খুন, গুম, চাঁদাবাজি, হত্যা, রাহাজানি এবং নিরাপত্তাবাহিনী ও সাধারণ মানুষের লাশ ঝড়তে দেখা যাচ্ছে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের চেয়ারম্যান এর তীব্র প্রতিবাদ জানান এবং সন্ত্রাসীদের কোনো ছাড় দেওয়া হবে না উল্লেখ করে অবিলম্বে যৌথবাহিনীর অভিযান আরও জোরালো করার জন্য সরকারের কাছে দাবি জানান।

সম্মেলনে পার্বত্য নাগরিক পরিষদের বান্দরবান জেলার সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দীন, সহ-সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সাধারণ সম্পাদক এরশাদ চৌধুরী, লামা উপজেলা সভাপতি কামরুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিনসহ পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের নেতাকর্মী এবং সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৪ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০২৪
এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।