ঢাকা, সোমবার, ২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

শ্লীলতাহানির ভিডিও ভাইরালের ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ, অভিযুক্ত যুবক গ্রেপ্তার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১০২ ঘণ্টা, মার্চ ৪, ২০২৪
শ্লীলতাহানির ভিডিও ভাইরালের ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ, অভিযুক্ত যুবক গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের বন্দরে শ্লীলতাহানির ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরালের ভয় দেখিয়ে যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত সিফাতকে (২৫) গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন।

রোববার (৩ মার্চ) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান র‍্যাব ১১ এর এএসপি সনদ বড়ুয়া।

এর আগে ২ মার্চ রায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা থানার রেলগেইট এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

স্থানীয় সূত্রের বরাত দিয়ে র‍্যাব জানায়, বন্দরে ১৮ বছরের এক যুবতীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে হাত পা বেঁধে শ্লীলতাহানি পর আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরালের ভয় দেখিয়ে জোর করে ধর্ষণ করার ঘটনা ঘটে। গত ২৩ ফেব্রুয়ারি এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নিজে বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানায় দুইজনের নাম উল্লেখ পূর্বক আরোও অজ্ঞাতনামা ৫-৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।  

মামলার আসামিরা হলো অভিযুক্ত ধর্ষক বন্দর উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের মোহনপুরস্থ নিশং এলাকার বাসিন্দা অয়ন (২৩)  ও ধর্ষণের সহায়তাকারী একই ইউনিয়নের নরপদী এলাকার নাহিদ মিয়ার ছেলে সিফাত।  

মামলার সূত্রে জানা গেছে, গত ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ রাত ৮টায় ভুক্তভোগী নারী ও তার ১৩ বছরের চাচাতো ভাই সিয়াম বন্দর উপজেলার নরপদীস্থ হান্নান মিয়ার দোকানের সামনে দিয়ে বাসায় ফেরার পথে সেখানে ওত পেতে থাকা কলাগাছিয়া, ইউনিয়নের নরপর্দী এলাকার নাহিদ মিয়ার ছেলে সিয়াম ওই যুবতীকে পথরোধ করে জোর করে একটি অটোরিকশায় করে নরপদী স্কুলের সামনে নিয়ে যায়। পরে সেখানে সিফাত ও অয়নসহ অজ্ঞাতনামা ৫-৭ জন মিলে ওই নারীকে জোর করে হাত পা বেঁধে পরিধানের জামা কাপড় টানা হেচড়া করে ছিড়ে ফেলে আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করার ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে।  

পরবর্তীতে ভূক্তভোগী নারী গত মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪) সন্ধ্যা ৬টায় ঘারমোড়াস্থ চাচাতো বোনের বাড়িতে দাওয়াতে থাকাকালীন সময় সিফাত ভূক্তভোগী নারীর মোবাইলে ফোন করে তাকে নরপদী ব্রিজের সামনে আসতে বলে। ওই সময় ভূক্তভোগী নারী ব্রিজে আসবে না বলে জানালে এ ঘটনায় সিফাত ক্ষিপ্ত হয়ে ধারণকৃত আপত্তিকর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করার ভয় দেখায়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নারী সম্মানের ভয়ে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৭টায় বন্দর থানার কুড়িয়াভিটা ব্রিজের সামনে আসলে ওই সময় সিফাতের সঙ্গে থাকা অয়ন ওই নারীকে কুপ্রস্তাব দেয়। কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সিফাতসহ অজ্ঞাত নামা ৫-৭ জনের সহায়তায় লম্পট অয়ন ওই নারীকে জোর করে ধর্ষণ করে কৌশলে পালিয়ে যায়।

গ্রেপ্তার আসামিকে পরবর্তী আইনানুগ কার্যক্রমের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানায় র‍্যাব।

বাংলাদেশ সময়: ০১০১ ঘণ্টা, মার্চ ৪, ২০২৪
এমআরপি/জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।