ঢাকা, রবিবার, ১৬ আশ্বিন ১৪৩০, ০১ অক্টোবর ২০২৩, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

রূপনগরকে রূপ দিয়ে সাজাতে চাই: মেয়র আতিকুল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২৩ ঘণ্টা, জুন ৭, ২০২৩
রূপনগরকে রূপ দিয়ে সাজাতে চাই: মেয়র আতিকুল মতবিনিময় সভায় ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। ছবি: জি এম মুজিবুর

ঢাকা: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, রূপনগরকে আমি রূপ দিয়ে সাজাতে চাই। এটি একটি স্যাম্পল ওয়ার্ড হবে, সবাই এসে দেখবে।

বুধবার (৭ জুন) দুপুরে রাজধানীর রূপনগর আবাসিক এলাকার রূপনগর খাল সংলগ্ন লিংক রোডের উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ও এলাকাবাসীর সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ট্যাক্সের কথা উল্লেখ করে মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, উন্নয়নের জন্য যা যা প্রয়োজন, আমি তা- ই করব। শুধুমাত্র একটি কথা, আমাকে ট্যাক্স দিতে হবে। তা না হলে চলব কী করে? 

তিনি বলেন, রূপনগরের রাস্তা করার জন্য ১৫ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। খালের পাশে যেখানে জায়গা থাকবে, সেখানে গাছ লাগানো ও পার্ক করা হবে। এই কাজ করতে গেলে টাকা লাগবে। আজকে যে বরাদ্দ দিয়েছি তা সিটি কর্পোরেশনের ফান্ড থেকে।  

নগরবাসীর উদ্দেশে মেয়র বলেন, আপনারা যথাসময়ে ট্যাক্সটা দিয়ে দেবেন। ট্যাক্স দিতে হবে। ট্যাক্স না দিলে রাজস্ব কীভাবে আদায় হবে। সিটি করপোরেশনের অফিসে গিয়ে ট্যাক্স দেবেন না। ট্যাক্স দেবেন অনলাইনে। ডিজিটাল ও স্মার্ট বাংলাদেশের স্মার্ট উত্তর সিটি করপোরেশন।  

তিনি বলেন, জনগণের জায়গা জনগণকে ফিরিয়ে দিতে হবে। এই জায়গা দখল করার অধিকার কারো নাই। আমাদের সঙ্গে জনগণ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠন ও নতুন প্রজন্ম আছে। রূপনগরের রাস্তা করার সময় আমি আপনাদের সবার সহযোগিতা চাই। এখানে রাস্তা-সেতু হবে। সব কিছু করব আপনাদের সঙ্গে নিয়ে।  

খালের সীমানা নির্ধারণের দাবি জানিয়ে মেয়র বলেন, ঢাকা শহরকে বাচাতে হলে খালের সীমানা নির্ধারণ করতে হবে সিএস দাগ দিয়ে। মহানগর জরিপ দিয়ে খালের সীমানা নির্ধারণ করলে হবে না। নদীর সীমানা যদি সিএস দাগ দিয়ে হতে পারে, খালের সীমানাও সিএস দাগ দিয়ে করতে হবে।  

খালের সীমানার বিষয়টি টেনে তিনি বলেন, খালের ১০০ ফুট দখল হয়ে গিয়েছে। খালের সীমানা আছে ১০ ফুট। এ দিয়ে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম চলতে পারবে না। নদী, খাল ও গাছ আল্লাহর দান। কিন্তু আমরা খাল-নদী দখল করছি, গাছ কেটে ফেলছি। আমরা পরিবেশকে নষ্ট করে ফেলছি। পরিবেশ নষ্ট করেছি বলেই পরিবেশ আমাদের ওপর প্রতিশোধ নিচ্ছে।  

অনুষ্ঠানে ৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর তোফাজ্জল হোসেন টেনুর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা-১৪ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আগা খান মিন্টু, ৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর জামাল মোস্তফা, ৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর তাজুল ইসলাম বাপ্পি প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৪১৫ ঘণ্টা, জুন ৭, ২০২৩

এমএমআই/আরএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa