ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ মাঘ ১৪২৯, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, ০৮ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

ফের পরিবহন ধর্মঘট নিয়ে রাজশাহীতে ধোঁয়াশা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৩৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৬, ২০২২
ফের পরিবহন ধর্মঘট নিয়ে রাজশাহীতে ধোঁয়াশা -ফাইল ছবি

রাজশাহী: রাজধানী ঢাকায় বিএনপির গণসমাবেশকে ঘিরে ফের পরিবহন ধর্মঘট শুরু হতে যাচ্ছে- এমন আশঙ্কায় পড়েছেন রাজশাহীবাসী। বিষয়টি নিয়ে ধোঁয়াশার মধ্যে পড়েছেন পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতারাও।

তারা কেন্দ্রের দিক নির্দেশনার দিকেই তাকিয়ে আছেন। নির্দেশনা অনুযায়ী তারা সিদ্ধান্ত নিতে প্রস্তুত। মালিক ও শ্রমিক নেতারা জানিয়েছেন, কেন্দ্র থেকে এখনো তারা কোনো সংকেত পাননি।

বিএনপির রাজশাহী বিভাগীয় গণসমাবেশকে কেন্দ্র করে এরইমধ্যে ১ থেকে ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত টানা তিনদিনের পরিবহন ধর্মঘট পার করেছেন রাজশাহীবাসী। এরইমধ্যে আবারও রাজধানী ঢাকায় আগামী ১০ ডিসেম্বর বিএনপির গণসমাবেশ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

এর আগে ঢাকার বাইরে কেবল কুমিল্লা ছাড়া বাকি ৮টি শহরে বিভাগীয় গণসমাবেশ করে বিএনপি। আর বিএনপির এই গণসমাবেশকে কেন্দ্র করেই প্রতিটি বিভাগেই পরিবহন ধর্মঘট পালন ডাকা হয়। এ কারণে অনেকেই ধারণা করছেন, ঢাকার গণসমাবেশের আগেও পরিবহন ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত আসতে পারে। আর এবার সারাদেশেই পরিবহন ধর্মঘটের ডাক আসতে পারে। তাই রাজশাহী থেকে ঢাকামুখী যাত্রীরা পড়েছেন সিদ্ধান্তহীনতায়।

অনেকেই আগামী ৭, ৮ ও ৯ ডিসেম্বরের বাসের অগাম টিকিট কেটেছেন। এই দিনগুলোতে তারা নানান প্রয়োজনে ঢাকায় যেতে চান। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বাস চলাচল করবে কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়। শেষ মুহূর্তে বাসের যাত্রা বাতিল হলে বিকল্প উপায়ে ঢাকা যাওয়ার চেষ্টা করাও কঠিন হবে। এসব ভাবনায় সাধারণ যাত্রীরাও পড়েছেন চরম অনিশ্চয়তায়।

রাজশাহী থেকে ঢাকাসহ বিভিন্ন গন্তব্যে দূরপাল্লার বাস পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান দেশ ট্রাভেলসের টিকিট কাউন্টার থেকে সানাউল্লাহ জানান, তারা এখন পর্যন্ত স্বাভাবিকভাবেই বাসের আগাম টিকিট বিক্রি করে যাচ্ছেন। আর এখনো ধর্মঘটের কোনো সিদ্ধান্ত তাদের জানা নেই। তবে কোনো কারণে বাসের যাত্রা বাতিল করা হলে নিয়ম অনুযায়ী যাত্রীদের টিকিটের টাকা ফেরত দেওয়া হবে।

এদিকে সারাদেশে ধর্মঘটের আগাম কোনো তথ্য জানাতে পারেননি রাজশাহী জেলা সড়ক পরিবহন গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক মতিউল ইসলাম টিটু। তিনি বলেন, আমরা নিজেরাই এ ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্তের কথা জানি না। তাহলে বাস কাউন্টারগুলোতে আগাম কী তথ্য দেব? আমরা আমাদের মতো টিকিট বিক্রি করছি। কোনো পরিস্থিতি তৈরি হলে তখন সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জানতে চাইলে একই ধরনের কথা বলেন রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম। তিনি বলেন, পরিবহন ধর্মঘটের কোনো সিদ্ধান্ত সাধারণত মালিক ও শ্রমিকরাই নিয়ে থাকেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত এ ধরনের কোনো সংকেত মেলেনি। তবে কোনো নির্দেশনা আসলে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমরা প্রস্তুত আছি।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৬, ২০২২
এসএস/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa