ঢাকা, বুধবার, ১৮ মাঘ ১৪২৯, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৯ রজব ১৪৪৪

লাইফস্টাইল

দৃষ্টিশক্তির সুরক্ষায় 

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৩, ২০২২
দৃষ্টিশক্তির সুরক্ষায় 

প্রতি বছরের মতো ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন ১৩ অক্টোবরকে বিশ্ব দৃষ্টি দিবস ঘোষণা করেছে। এর মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে মানুষকে আই হেলথ সম্পর্কে সচেতন করা।

কারণ বাংলাদেশসহ পুরো পৃথিবীতে অন্ধত্বের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।  

চোখ আলোক-সংবেদনশীল অঙ্গ। প্রতিটি মানুষের নিজের চোখের প্রতি অত্যন্ত যত্নবান হওয়া উচিত।

সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি থেকে রক্ষা পেতে আমরা চশমা ও রোদচশমা ব্যবহার করি। চোখের সুরক্ষায় একটানা কম্পিউটারের পর্দায় সময় দেওয়া উচিত নয়। চোখ সুস্থ রাখতে চোখের নিয়মিত বিশ্রাম ও ধূমপানের অভ্যাস ত্যাগ করা জরুরি।

ভিটামিন এ, সি, ই, প্রোটিন, অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট, বিটা-ক্যারোটিন এবং ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ খাবার চোখের ছানি পড়া, দৃষ্টিশক্তি কমে আসা, বয়সজনিত পেশী পতন এবং সূর্যালোক, বায়ু দূষণ ও সিগারেটের ধোঁয়ার মতো বিষয়গুলির ক্ষতি রোধ করতে সাহায্য করে। যে পাঁচটি খাবার চোখের স্বাস্থ্যের জন্য নিয়মিত খেতে হবে-

গাজর ও অন্যান্য কমলা রঙের ফল ও সবজি

চোখের স্বাস্থ্যের জন্য বিটা-ক্যারোটিন সমৃদ্ধ কমলা রঙের ফল সবচেয়ে উপকারী। এসব ফলে থাকা বিটা-ক্যারোটিন ভিটামিন ‘এ’ তে রূপান্তরিত হয়ে চোখের দৃষ্টি শক্তি কমে যাওয়া রোধে কাজ করে। গাজর ছাড়াও মিষ্টি আলু, কুমড়ো, লাউ জাতীয় সবজি, কমলা ও লাল মরিচেও বিটা-ক্যারোটিন রয়েছে।

সবুজ শাক সবজি

পাতা কপি, শাক, ব্রকলি, সবুজ শাক সবজি এমনকি ডাল এবং অ্যাভোকাডোর ভেতর থাকা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট চোখের ছানি ও ম্যাকুলার পতন রোধে দারুণ কার্যকরী। দৃশ্যমান আলো চোখের লেন্স ও রেটিনার ক্ষতি করে। সবুজ শাক সবজি সপ্তাহে এক বা দুইবার এবং কিউই ও আঙুর ফল খাদ্য তালিকায় যুক্ত হলে চোখের পুষ্টির চাহিদা পূরণ হয়।

জাম এবং লেবু জাতীয় ফল

ভিটামিন সি চোখের ক্ষতি এবং চোখের বিভিন্ন রোগের ঝুঁকি কমায়। তাই প্রতিদিন প্রত্যেকের খাবার তালিকায় ভিটামিন ‘সি’ সমৃদ্ধ খাবার থাকা বাঞ্ছনীয়। দিনে একটি কমলা, আঙুর, লেবু বা বাতাবি লেবু খাওয়াই যথেষ্ট। সকল জামেই জন্য প্রচুর পরিমান ভিটামিন সি থাকে। স্ট্রবেরি, ব্ল্যাকবেরি, ব্লুবেরি, কালো জাম, আম, পেপে ভিটামিন সি সমৃদ্ধ সুস্বাদু ফল।

বীজ, বাদাম এবং সকল শস্য

চোখের স্বাস্থ্যের জন্য ভিটামিন ‘ই’ এবং ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড চোখের জন্য অত্যন্ত দরকারি। এসব পুষ্টির বড় উৎস বাদাম ও বীজ। দৈনিক ভিটামির ‘ই’ এর চাহিদা পূরণে দুই মুঠো পরিমাণ কাজুবাদাম, আখরোট, সূর্যমুখী বীজ, পেস্তা বাদাম বা অন্য কোনো বাদাম খেতে হবে।

মাছ এবং সামুদ্রিক খাবার

মস্তিষ্ক, হৃৎপিণ্ড ও চোখের সুস্বাস্থ্যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড। সারডিন, টোনা, হেরিং, রাঘববোয়াল মাছ এবং কাঁকড়া ও ঝিনুকে প্রচুর পরিমাণে ওমেগা-৩ ফ্যাটি রয়েছে। সপ্তাহে দু’দিন এসব খাদ্য গ্রহণ করলে দৃষ্টিশক্তি ও স্বাস্থ্যের জন্যই তা দারুণ কার্যকর হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৩, ২০২২
এসআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa