ঢাকা, শুক্রবার, ১১ আষাঢ় ১৪২৮, ২৫ জুন ২০২১, ১৪ জিলকদ ১৪৪২

লাইফস্টাইল

ঈদে বিফ-চিকেন-মাটন যেভাবে

লাইফস্টাইল ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৪৮ ঘণ্টা, মে ১০, ২০২১
ঈদে বিফ-চিকেন-মাটন যেভাবে

 ঈদ মানেই স্পেশাল সব খাওয়া-দাওয়া। প্রতিদিনের মাংস ঝোল-ভুনার পরিবর্তে ঈদের জন্য স্পেশাল রেসিপি জেনে নিন: 

বাটার চিকেন
উপকরণ
মুরগির মাংস দেড় কেজি, টক দই সিকি কাপ, টমোটো পিউরি দেড় কাপ, আদা বাটা ১ টেবিল-চামচ, শুকনা মরিচ কুচি ১ টেবিল-চামচ, ধনে-জিরা ও কালো গোলমরিচ একসঙ্গে ভেজে গুঁড়া করা ১ চা-চামচ, মাখন ৫০ গ্রাম, ক্রিম ১ টিন (দুধের সর দিলেও চলবে), লবণ প্রয়োজনমতো, সয়াবিন তেল সিকি কাপ।

   

প্রণালী
 মুরগি সিকি কাপ তেলে আদা বাটা, শুকনা মরিচ কুচি ও লবণ দিয়ে হালকা করে ভাজতে হবে। এবার টক দই, টমোটো পিউরি ও ভাজা মসলা দিয়ে রান্না করতে হবে। মসলা ঘন হয়ে এলে দুধের সর বা ক্রিম দিয়ে দমে বসাতে হবে। এবার মাখন অন্য পাত্রে গুলে মুরগির পাত্রে ঢেলে দিতে হবে। দুই মিনিট পর নামিয়ে পরিবেশন করুন।

কালো ভুনা
উপকরণ: গরুর মাংস-১ কেজি, সরিষার তেল-আধা কাপ, আদা, রসুন, পেঁয়াজ বাটা ১ কাপ, হলুদ গুঁড়া-২ চামচ, মরিচ গুঁড়া-৪ চামচ, ধনিয়া গুঁড়া-২ চামচ, জিরা গুঁড়া ১ চামচ, আলু বোখারা-৫টি, টমাটো লম্বা ফালি-২টি, কাঁচা মরিচ আস্ত ৬টি, লবণ-২ চামচ, পেঁয়াজ কুচি- ১কাপ, হাটহাজারী মরিচ ভেজে গুঁড়া করা-৩ চামচ, ধনেপাতা কুচি- ২ চামচ, গরম মসলা গুঁড়া- ২ চামচ।

তৈরি করার নিয়ম: প্রথমে একটি বাটিতে গরুর মাংস, আদা, রসুন, পেঁয়াজ বাটা, মরিচ, ধনিয়া ও জিরা গুঁড়া, আলু বোখারা, টমাটো, কাঁচা মরিচ, লবণ, পেঁয়াজ কুচি ও সরিষার তেল দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে নিন। চুলায় একটি হাঁড়ি দিন। হাঁড়িতে মাখানো মাংস দিয়ে নাড়াচাড়া করে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে ৩০ মিনিট জ্বাল দিতে হবে। চুলায় আরেকটি হাঁড়িতে তেল দিন। তেল গরম হলে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে সামান্য ভেজে জ্বাল করে রাখা গরুর মাংস, হাটহাজারী মরিচ গুঁড়া, ধনেপাতা কুচি, গরম মসলা গুঁড়া দিয়ে নাড়াচাড়া করুন। মাংস কালো হয়ে ওপরে তেল ভেসে উঠলে নামিয়ে নিন। তৈরি হয়ে যাবে কালো ভুনা। সুন্দর করে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।  

মাটন কোরমা
উপকরণ: খাসির মাংস দুই কেজি, পেঁয়াজবাটা আধা কাপ, রসুনবাটা দুই চা-চামচ, আদাবাটা এক টেবিল-চামচ, দারুচিনি বড় চার টুকরা, তেজপাতা দুটি, লবণ দুই চা-চামচ, ঘি আধা কাপ, কাঁচা মরিচ আটটি, কেওড়া দুই টেবিল-চামচ, তরল দুধ দুই টেবিল-চামচ, এলাচি চারটি, টক দই আধা কাপ, চিনি চার চা-চামচ, দেশি পেঁয়াজকুচি আধ কাপ, লেবুর রস এক টেবিল-চামচ, জাফরান আধা চা-চামচ, (দুই টেবিল-চামচ তরল দুধে ভিজিয়ে ঢেকে রাখুন)।

প্রণালী: মাংস টুকরো করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। সব বাটা মসলা, গরম মসলা, টক দই, সিকি কাপ ঘি ও লবণ দিয়ে মেখে হাত ধোয়া পানি দিয়ে ঢেকে মাঝারি আঁচে চুলায় বসিয়ে দিন। মাংস সেদ্ধ না হলে আরও পানি দিন।

পানি অর্ধেক টেনে গেলে কেওড়া ও কাঁচা মরিচ দিয়ে আবার হালকা নেড়ে ঢেকে দিন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর পাশের চুলায় বাকি ঘি গরম করে পেঁয়াজকুচি সোনালি রং করে ভেজে মাংসের হাঁড়িতে দিয়ে বাগার দিন। তারপর চিনি দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন। পাঁচ মিনিট পর ঢাকনা খুলে দুধে ভেজানো জাফরান ওপর থেকে ছিটিয়ে দিয়ে আরও পাঁচ মিনিট ঢেকে রাখুন। তারপর ঢাকনা খুলে লেবুর রস দিয়ে হালকা নেড়ে আঁচ একেবারে কমিয়ে তাওয়ার ওপর ঢেকে প্রায় ২০ মিনিট থেকে আধা ঘণ্টার মতো দমে রাখুন।

যখন কোরমা মাখা মাখা হয়ে বাদামি রং হবে এবং মসলা থেকে তেল ছাড়া শুরু করবে, তখন নামিয়ে পরিবেশন করুন।

বাংলাদেশ সময়: ১০৪০ ঘণ্টা, মে ১০, ২০২১
এসআইএস
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa