ঢাকা, শুক্রবার, ১১ আষাঢ় ১৪২৮, ২৫ জুন ২০২১, ১৪ জিলকদ ১৪৪২

লাইফস্টাইল

ওয়ার্ল্ড অ্যাজমা ডে, করোনাকালে হাঁপানি প্রতিরোধে 

লাইফস্টাইল ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪৪ ঘণ্টা, মে ৪, ২০২১
ওয়ার্ল্ড অ্যাজমা ডে, করোনাকালে হাঁপানি প্রতিরোধে 

প্রতি বছর ৫ মে ওয়ার্ল্ড অ্যাজমা ডে বা বিশ্ব হাঁপানি দিবস পালিত হয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)-র রিপোর্ট অনুযায়ী হাঁপানিতে ৮০ শতাংশ লোক মারা যায় নিম্ন ও নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশগুলোতে।

এখন চলছে মহামারি করোনাকাল। আর করোনার প্রধান ভয়াবহ উপসর্গই শ্বাসকষ্ট। আবার হাঁপানির উপসর্গও এটি। বিশেষজ্ঞরা বলেন,  পরিবারের কারো সমস্যা থাকলে, অ্যাজমা হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায় অনেকখানি। হাঁপানি সারানো যায় না। কিন্তু চেষ্টা করলেই তা নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। আর তার জন্য দরকার সচেতনতা।

হাঁপানি থাকলে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমাতে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নিতে হবে। যার মধ্যে রয়েছে: 

•    নিজের শরীর সম্পর্কে সচেতন হন 

•    ধুলাবালি থেকে দূরে থাকুন 

•    সব সময় পরিষ্কার থাকতে হবে 

•    ঘর ও নিজের চারপাশ পরিষ্কার জীবাণুমুক্ত রাখুন 

•    কোনো খাবার থেকেও হতে পারে শ্বাসকষ্ট। সেগুলো খাবেন না 

•    গণপরিবহন এড়ানো ও বেশি মানুষের ভেতরে না যাওয়া 

•    লকডাউন বা ছুটিতে বাড়িতে থেকেই কাজ করতে হবে 

•    হাত ধোয়ার স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে

•    বসবাসের জায়গার স্যানিটেশন করতে হবে 

•    অন্য ব্যক্তির থেকে তিন মিটার দূরত্ব বজায় রাখতে পারলে ভালো হয়।  
 

হাঁপানি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এবং করোনা ভাইরাসে সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে মহামারি চলাকালীন নিয়মিত আপনার ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ওষুধ ও ইনহেলার ব্যবহার করুন।


বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৩ ঘণ্টা, মে ০৪, ২০২১
এসআইএস
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa