ঢাকা, সোমবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

লাইফস্টাইল

শুভ্রতায় সোনালি স্বর্গ গোসাইকুন্ড

লাইফস্টাইল ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২১৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২০
শুভ্রতায় সোনালি স্বর্গ গোসাইকুন্ড গোসাইকুন্ড

চারপাশে ঢেউ খেলানো শ্বেত-শুভ্র পর্বতসারি আকাশ ছোঁয়ার প্রত্যয় নিয়ে সটান দাঁড়িয়ে। সেসব পর্বতের ছায়া পড়েছে লেকের স্বচ্ছ নীল স্ফটিক জলে। বলছিলাম নেপালের ল্যাংটাং ন্যাশনাল পার্কে অবস্থিত মোহময় লেকের অঞ্চল গোসাইকুন্ডের কথা

গোসাইকুন্ডকিছু দিন আগে সায়াব্রুবেসি নামক স্থান হতে কায়াঞ্জিন গোম্বা হয়ে টানা ৮দিন ট্রেক করে পৌঁছেছিলাম এই স্বপ্নরাজ্যে।  সেই থেকে এক ঘোরের মধ্যে আছি।

সেই ঘোর কাটেনি এখনো। সেই স্বপ্নরাজ্যের গল্প বলার ক্ষুদ্র চেষ্টা এই ছবিগল্পটি

গোসাইকুন্ড

পর্বতচুড়ার গায়ে লেগে থাকা সাদা মেঘ আর সূর্যের লুকোচুরিতে শামিল হতে ঘন ঘন রং পাল্টাচ্ছে লেকের স্বচ্ছ জলও 

গোসাইকুন্ড

পুরো এলাকা জুড়েই ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রয়েছে বেশ ক'টা লেক। বেশিরভাগই হিমাঙ্কের নিচের তাপমাত্রায় জমে বরফ হয়ে থাকে বছরের বেশ কয়েক মাস।  নেপাল বেড়াতে গেলে, হাতে সময় থাকলে এই স্বর্গীয় সৌন্দর্য উপভোগ করতে ভুলবেন না।  

গোসাইকুন্ড

উইকিপিডিয়ার তথ্য মতে, গোসাইকুন্ড নেপালের লাংটাং রাষ্ট্রীয় নিকুঞ্জে অবস্থিত একটি স্বাদুপানির হ্রদ। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৪ হাজার ৩৮০ মিটার উচ্চতায় নেপালের রসুয়া জেলায় এই হ্রদের অবস্থান। গোসাইকুন্ড হ্রদের আকার ১৩.৮ হেক্টর (৩৪ একর)।  

হ্রদটির পাশে অবস্থিত অন্যান্য জলাভূমি মিলিয়ে মোট আকার ১,০৩০ হেক্টর। ২০০৭ সালের সেপ্টেম্বরে এগুলো একসঙ্গে রামসার স্থান হিসেবে ঘোষণা করা হয়।  

লেখা ও ছবি- বাবর আলী

বাংলাদেশ সময়: ১৭১৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৫, ২০২০
এসআইএস  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa