ঢাকা, শুক্রবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৯, ১৯ আগস্ট ২০২২, ২০ মহররম ১৪৪৪

আইন ও আদালত

নেছারাবাদে হত্যার মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৩৯ ঘণ্টা, জুন ২৭, ২০২২
নেছারাবাদে হত্যার মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন

পিরোজপুর: পিরোজপুরের নেছারাবাদ উপজেলায় আব্দুর রহিম নামে এক ব্যক্তিকে হত্যার দায়ে বেল্লাল বেপারী (২৭) নামে এক যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত।

সোমবার (২৭জুন) বিকেলে আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন জেলা ও দায়রা জজ মুহা.মুহিদুজ্জামান।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দক্ষিণ সোহাগদল গ্রামের বেল্লার বেপারী প্রতিবেশী মনির হোসেনের মেয়ে বৃষ্টিকে জোর করে তুলে নিয়ে বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকে শুরু হয় তার ওপর নির্যাতন। স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে বৃষ্টি বাবার বাড়ি এবং এরপর ঢাকায় চলে যান। গত ২০১৬ সালের ৬ জুলাই বৃষ্টি ঢাকা থেকে ফুপা সেলিমের বাড়িতে গেলে ওই দিন রাতে বেল্লাল বেপারীসহ কয়েকজন সেলিমের বাড়ি গিয়ে বৃষ্টিকে জোর করে তুলে নেওয়ার চেষ্টা করেন। বৃষ্টি তার স্বামী বেল্লাল বেপারীর সঙ্গে যেতে না চাইলে আসামিরা ওই বাড়ি ভাঙচুর করেন। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে বেল্লাল বেপারী মেয়ে পক্ষের আব্দুর রহিমকে কুপিয়ে জখম করেন। আহত রহিমকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পর চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় পরদিন আব্দুর রহিমের ভাই আব্দুর রব খলিফা বাদী হয়ে বেল্লাল বেপারীসহ ছয় জনের নামে থানায় মামলা করেন। ওই মামলায় বেল্লালকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও পাঁচ আসামিকে খালাস দেন আদালত।

সরকার পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন পিপি খান মো. আলাউদ্দিন। আসামি পক্ষে ছিলেন দেলোয়ার হোসেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৮ ঘণ্টা, জুন ২৭, ২০২২
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa