ঢাকা, রবিবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ জুলাই ২০২২, ০২ জিলহজ ১৪৪৩

আইন ও আদালত

মেয়েদের উত্ত্যক্ত করায় যুবক খুন, বাবার যাবজ্জীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪০৪ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০২২
মেয়েদের উত্ত্যক্ত করায় যুবক খুন, বাবার যাবজ্জীবন

সিরাজগঞ্জ: মেয়েদের উত্ত্যক্ত করায় ইয়াকুব মোল্লা (২০) নামে এক যুবককে হত্যার দায়ে সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুরে তিন মেয়ের বাবাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়াও প্রত্যেকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

সোমবার (২৩ মে) দুপুরে সিরাজগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক বেগম সালমা খাতুন দণ্ড দেন। অপর একটি ধারায় তিন আসামিকে ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ৩ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন আদালত।  

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর থানার খুকনী কান্দিপাড়া গ্রামের মো. রইচ উদ্দিনের প্রামানিকের ছেলে আব্দুর রহিম খলিফা (৫০), একই গ্রামের মৃত শুকর আলী সরকারের ছেলে আব্দুর রহমান (৪৮) ও মো. ওয়াজেদ আলীর ছেলে খুশি আলম ওরফে সাইফুল ইসলাম (৪২)। রায় ঘোষণার সময় দুই আসামি উপস্থিত থাকলেও আব্দুর রহমান পলাতক রয়েছেন।  

ওই আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) ওয়াজ করনী লকেট বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।  

মামলার বিবরণে জানা যায়, এনায়েতপুরের রুপনাই গাছপাড়া গ্রামের ইয়াসিন মোল্লার ছেলে ভিকটিম ইয়াকুব আসামির মেয়েদের বিরক্ত করতেন। সেই রাগে ২০২০ সালের ৫ জানুয়ারি থেকে ৭ জানুয়ারি বেলা সাড়ে ১২টার মধ্যে কোনো এক সময়ে ইয়াকুবকে পরিকল্পিতভাবে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এছাড়াও মরদেহ গুম করার জন্য এনায়েতপুর থানার খুকনী ইসলামপুর একটি সরিষা ক্ষেতের মধ্যে ফেলে রাখে।  

এ ঘটনায় ভিকটিম ইয়াকুবের বাবা ইয়াসিন মোল্লা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তের এক পর্যায়ে গ্রেফতার হন আব্দুর রহমান। তিনি এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে নিজেসহ অপর দুই আসামি জড়িত স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন। প্রসিকিউশন ১৬ জন সাক্ষী উপস্থাপন করেন। মামলার শুনানি শেষে বিচারক আজ দুই আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন।  

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫৫ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০২২
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa