ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ৩০ জুন ২০২২, ০০ জিলহজ ১৪৪৩

আইন ও আদালত

দুই আত্মীয়ের নামে মামলা করলেন অভিনেতা সাব্বির

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২২ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৪, ২০২২
দুই আত্মীয়ের নামে মামলা করলেন অভিনেতা সাব্বির অভিনেতা সাব্বির আহমেদ

ঢাকা: প্রতারণার অভিযোগে দুই আত্মীয়ের বিরুদ্ধে ঢাকার আদালতে মামলা করলেন ছোট পর্দার অভিনেতা সাব্বির আহমেদ।

রোববার (২৪ এপ্রিল) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহর আদালতে তিনি এই মামলা দায়ের করেন।

আসামিরা হলেন—রেজাউল করিম ও তার স্ত্রী লিপি আক্তার।

আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

সিএমএস আদালতের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর আজাদ রহমান এ তথ্য জানান।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, আত্মীয়তার সূত্র ধরে রেজাউল করিম ব্যবসা বৃদ্ধির জন্য টাকার প্রয়োজনে লভ্যাংশ দেওয়ার কথা বলে ২০১৬ সালের ২৯ আগস্ট সাব্বিরের কাছ থেকে ৯ লাখ ৭২ হাজার টাকা এবং সাব্বিরের ভাই ও এই মামলার সাক্ষী ফজলে রাব্বির কাছ থেকে ২৩ লাখ নেন। ওই দিন এ মামলার আরেক সাক্ষী সুলতানা পারভীনের কাছ থেকে ৪ লাখ ৩৬ হাজার টাকা নেন রেজাউল। সবমিলিয়ে আসামি ৩৭ লাখ ৮ হাজার টাকা নেন।

৩০০ টাকার নন জুডিসিয়াল স্ট্যাম্পে তিনি অঙ্গীকার করেন, সর্বমোট টাকার মধ্যে ১০/১৫ লাখ টাকা আসামি নগদে পরিশোধ করবেন এবং বাকি টাকা ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে পরিশোধ করবেন।

ভুক্তভোগীরা রেজাউল করিমের কথায় বিশ্বাস না করলে তার স্ত্রী লিপি আক্তার টাকার ফেরত দেওয়ার আশ্বাস দেন।

এরপর ২০১৭ সাল শেষ পর্যায়ে চলে আসলেও আসামিরা তাদের টাকা পরিশোধ না করে টালবাহানা শুরু করেন। পারিবারিকভাবে তাদের মধ্যে শালিস বৈঠক করলেও আসামিরা প্রতিশ্রুতি দিয়েও কোনো টাকা না দিয়ে বারবার ঠিকানা বদল করে পালিয়ে বেড়াতে থাকেন।

গত ২ ফেব্রুয়ারি এ বিষয়ে তারা আবার মুগদা থানাধীন এলাকার বাসায় শালিস হয়। টাকা পরিশোধ করবে বললেও আসামিরা এখন পর্যন্ত কোনো টাকা পরিশোধ না করে তাদের হুমকি দেন।

সাব্বির আহমেদ মামলায় বলেন, এ বিষয়ে তিনি থানায় মামলা করতে যান। তবে কর্তৃপক্ষ মামলা না নিয়ে আদালতে মামলা করার পরামর্শ দেন। পরে তিনি ন্যায়বিচারের আশায় আদালতে এসে মামলা করলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৪, ২০২২
কেআই/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa