ঢাকা, শনিবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

আইন ও আদালত

নড়াইলে নারীসহ ২ জনের যাবজ্জীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২০০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৩, ২০২১
নড়াইলে নারীসহ ২ জনের যাবজ্জীবন

নড়াইল: নড়াইলে দুটি পৃথক মাদক মামলায় মুক্তা বেগম ও আব্দুল বারেক নামে দুই জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া উভয়কে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন আদালত।

দণ্ডপ্রাপ্তরা পলাতক রয়েছেন।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) সকালে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুন্সী মো. মশিয়ার রহমান এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- নড়াইল জেলার সদর উপজেলার চিলগাছা রঘুনাথপুর গ্রামের মৃত মোস্ত কাজীর স্ত্রী মুক্তা বেগম এবং গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানি থানার রজাপাট সিলটা গ্রামের আয়ুইব আলী মোল্যার ছেলে আব্দুল বারেক (বারি) ওরফে বারিক।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৮ সালের ৭ জুনে বিকেলে নড়াইল সদর উপজেলার চিলগাছা রঘুনাথপুর গ্রামের মৃত মোস্ত কাজীর স্ত্রী মুক্তা বেগমের বাড়িতে তল্লাশি চালায় নড়াইল ডিবি পুলিশের একটি দল। এ সময় তার ব্যাগ তল্লাশি করে ২৫ বোতল (২.৫ কেজি) ফেনসিডিল উদ্ধার করে। পরে তাকে গ্রেফতার করে নড়াইল সদর থানায় সোর্পদ করে। পরবর্তীতে পুলিশ বাদী হয়ে এ ঘটনায় সদর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করে।  

অপর মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১২ সালের জানুয়ারির ১৯ তারিখে লোহাগড়া থানার একটি দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে লোহাগড়ার আব্দুল হাই শেখের বাড়ি থেকে ভাড়াটিয়া গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানি থানার রজাপাট সিলটা গ্রামের আয়ুইব আলী মোল্যার ছেলে আব্দুল বারেকের (বারি) ঘর থেকে ৯৮ বোতল (৯.৮ কেজি) ফেনসিডিল উদ্ধার করে। এসময় আব্দুল বারেক পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে পুলিশ বাদী হয়ে এ ঘটনায় লোহাগড়া থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করে।  

দীর্ঘ শুনানি শেষে ওই দুই মামলায় আজ আদালত এ রায় দেন। আসামিরা পলাতক থাকায় তাদের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

বাংলাদেশ সময়: ১১৫৬ ঘণ্টা, অক্টোবর  ১৩, ২০২১
এএটি 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa