ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

আইন ও আদালত

সাহেদসহ পাঁচজনের মামলার প্রতিবেদন ১০ নভেম্বর 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০
সাহেদসহ পাঁচজনের মামলার প্রতিবেদন ১০ নভেম্বর  মো. সাহেদ, ফাইল ফটো

ঢাকা: রাজধানীর রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. সাহেদসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ আগামী ১০ নভেম্বর ধার্য করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) ঢাকার মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কে এম ইমরুল কায়েশ মামলার এজাহার গ্রহণ করে দুদক উপ-পরিচালক ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারীকে মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

গত বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দুর্নীতি দমন কমিশন গঠিত তিন সদস্যের অনুসন্ধান টিমের অভিযোগ অনুসন্ধান শেষে কমিশনের অনুমোদনক্রমে পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। মামলায় বাদী হয়েছেন দুদক উপ-পরিচালক মো. ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী।

মামলাটিতে যাদের আসামি করা হয়েছে, তারা হলেন- সাহেদ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিক) ডা. মো. আমিনুল হাসান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (হাসপাতাল-১) ডা. মো. ইউনুস আলী, সহকারী পরিচালক (হাসপাতাল-১) ডা. মো. শফিউর রহমান ও গবেষণা কর্মকর্তা ডা. মো. দিদারুল ইসলাম।

মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, আসামিরা অন্যায়ভাবে লাভবান হওয়ার উদ্দেশে পরস্পরের যোগসাজশে ক্ষমতার অপব্যবহার করে লাইসেন্স নবায়ন বিহীন রিজেন্ট হাসপাতালকে ডেডিকেটেড কোভিড হাসপাতালে রূপান্তর করেছেন।

মেমোরেন্ডাম অব আন্ডারস্ট্যান্ডিং সম্পাদন ও সরকারি প্রতিষ্ঠান নিপসমের ল্যাবে তিন হাজার ৯৩৯ জন কোভিড রোগীর নমুনা বিনামূল্যে পরীক্ষা করার কথা থাকলেও তারা প্রতিটি টেস্ট বাবদ সাড়ে তিন হাজার করে মোট এক কোটি ৩৭ লাখ ৮৬ হাজার ৫০০ টাকা আত্মসাৎ করেছেন। এছাড়া আরও কয়েকটি আভিযোগ আনা হয়েছে মামলাটিতে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১১ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০
কেআই/আরবি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa