ঢাকা, বুধবার, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯, ১০ আগস্ট ২০২২, ১১ মহররম ১৪৪৪

ইসলাম

যুক্তরাজ্যের সাউথ লিডসে বিলাসবহুল মসজিদ

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২১৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ১, ২০১৮
যুক্তরাজ্যের সাউথ লিডসে বিলাসবহুল মসজিদ আবু হুরাইরা জামে মসজিদ

যুক্তরাজ্যের সাউথ লিডসে ২২ লাখ পাউন্ড-স্টার্লিং খরচ করে একটি বিলাসবহুল মসজিদ নির্মাণ করা হয়েছে। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার খরচ পড়েছে দুই কোটি ৪২ লাখ ৩০ হাজার ৮০০ টাকার মতো।

সাউথ লিডসের মুসলিম সম্প্রদায়ের সার্বিক পরিকল্পনা, ব্যবস্থাপনা ও তহবিলে নির্মাণকাজ সম্পন্ন হয়েছে। নির্মাণকাজ সমাপ্ত হতে প্রায় সাত বছর লেগেছে।

বিস্টনের অত্যাধুনিক এ মসজিদের নাম দেওয়া হয়েছে, ‘আবু হুরাইরা জামে মসজিদ’। গত ১৬ সেপ্টেম্বর (শনিবার) মসজিদটির ‌উদ্বোধন হয়।

ব্রিটেনের কাশ্মির মুসলিম ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের (কেএমডাব্লিউএ) ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুব নাজির বলেন, বছরের ধারাক্রমে এখানে মুসলিম সম্প্রদায়ের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে যাচ্ছে। ফলে নতুন মসজিদ নির্মাণের প্রয়োজন দেখা দেয়। মুসল্লিদের স্থান সংকুলান হওয়ার প্রেক্ষিতে আবু হুরাইরা জামে মসজিদটি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, যত দূর সম্ভব আমরা মসজিদ-বিল্ডিং বড় করে করার চেষ্টা করেছি। তবুও গত শুক্রবার প্রায় ১৫০ মুসল্লিকে মসজিদ আঙিনার বাইরে নামাজ পড়তে হয়েছে। অবশ্য মসজিদের বাইরের আঙিনায় নামাজ পড়ার বিষয়টি এখানকার মুসলমানরা দীর্ঘদিন ধরে চর্চা করে আসছে। যারা কষ্ট করে বাইরের রাস্তায় নামাজ পড়তো, তাদের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক লোককে এ নতুন মসজিদে নামাজ আদায় কর‍ার ব্যবস্থা করে দিতে পেরে আমরা গর্বিত ও আনন্দিত।
আবু হুরাইরা জামে মসজিদমূলত নতুন মসজিদটি হার্ডি স্ট্রিটের পুরানো কো-অপ মিল মিলনায়তনের প্রাক্তন ছোট মসজিদের জায়গায় প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। যেটি ব্রিটেনের কেএমডাব্লিউ কর্তৃক ৩০ বছর আগে পাওয়া গিয়েছিল। ২০১১ সালে মসজিদ-কমিটি লিডস সিটি কাউন্সিলের কাছে নতুন মসজিদে নির্মাণের পরিকল্পনা পেশ কর‍া হয়েছিল। পরবর্তীতে ক্যাথরিন গ্রোভের খালি জমি অধিগ্রহণ করে মসজিদের জন্য দেওয়া হয়েছিল।

নির্মাণ কাজে সাত বছর
সাত বছর ধরে, নতুন মসজিদ নির্মাণের জন্য তহবিল সংগ্রহকারীরা প্রয়োজনীয় অর্থের যোগান দিতে মুসলিম সম্প্রদায়কে নিয়ে কয়েকবার সভা-সমাবেশ করেছে। পাশাপাশি যুক্তরাজ্যের অন্যান্য অঞ্চলের মুসলিম সম্প্রদায় থেকেও অর্থ সংগ্রহ করেছে।

মাহবুব নাজির বলেন, অল্প বয়সী মুসলিম ছেলে-মেয়েদের জন্য আমরা খুব শিগগির একটি আর্ট-লাইব্রেরি চালু করতে যাচ্ছি এবং যুবসমাজের জন্য মসজিদের আগের অংশটিতে বিশেষ কিছু ব্যবস্থা করা হবে। পাশাপাশি স্থানীয় বিদ্যালয়গুলির সাথে আমাদের সম্পর্ক এবং সম্প্রদায়ের জন্য আমাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য, স্থানীয় কাউন্সিল, পুলিশ ও অন্যান্য দাতব্য সংস্থার সঙ্গে সার্বিক উন্নয়নে কাজ ইত্যাদিতে অংশগ্রহণ করতে আমরা বিভিন্ন পরিকল্পনা হাতে নিচ্ছি।

ইসলাম বিভাগে লেখা পাঠাতে মেইল করুন: [email protected]

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৮
এমএমইউ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa