ঢাকা, বুধবার, ১০ বৈশাখ ১৪৩১, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৫

ইসলাম

আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে মুসল্লিদের ঢল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০০৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২৪
আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে মুসল্লিদের ঢল

বিশ্ব ইজতেমা ময়দান থেকে: রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এ বছরের তাবলিগ জামাতের আন্তর্জাতিক সম্মেলন বিশ্ব ইজতেমা-২০২৪ এর দ্বিতীয় ও শেষ পর্ব।  

এদিকে আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে রোববার ভোর থেকে দলে দলে বিশ্ব ইজতেমার ময়দানে আসতে শুরু করেছেন মুসল্লিরা।

তবে প্রথম পর্বে যেমন লোক সমাগম হয়েছে দ্বিতীয় পর্বে সেই তুলনায় মুসল্লিদের সংখ্যা কিছুটা কম দেখা গেছে।

দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমা আয়োজকদের মিডিয়া সমন্বয়কারী মোহাম্মদ সায়েম জানিয়েছেন, এবার বিশ্ব ইজতেমা-২০২৪ এর দ্বিতীয় পর্বে মাওলানা সাদ কান্ধলভীর বড় ছেলে মাওলানা ইউসুফ বিন সাদ কান্ধলভী আখেরি জুমার নামাজ পরিচালনা করবেন। গত বছরও তিনি দ্বিতীয় পর্বের আখেরি জুমার নামাজ পরিচালনা করেছিলেন।  

আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে রাজধানীর বিমানবন্দর, উত্তরা, আব্দুল্লাহপুর, কামারপাড়া ও টঙ্গী স্টেশন রোড দিয়ে হেঁটে মুসল্লিরা ময়দানে প্রবেশ করছেন। এদিকে মুসল্লিদের হাঁটা-চলার সুবিধার্থে আব্দুল্লাহপুর, টঙ্গী হয়ে গাজীপুরের ভোগরা ও কামারপাড়া থেকে ভোগড়া বাইপাস পর্যন্ত যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। মুসল্লিরা হেঁটে-মোটরসাইকেলে করে ময়দানে আসছেন। রাস্তায় গণপরিবহন চলছে না। তবে কিছু ব্যক্তিগত যানবাহন চলাচল করতে দেখা গেছে। বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় ও শেষ পর্বে সড়কগুলো অনেকটা ফাঁকা দেখা গেছে।  

মুসল্লিদের আসা-যাওয়া নির্বিঘ্ন করতে টঙ্গীতে যানবাহন ঢোকার পথগুলো নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বন্ধ রেখেছে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (জিএমপি)। শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) রাত ১২টা থেকে রাজধানীর আব্দুল্লাহপুর থেকে গাজীপুর মহানগরীর ভোগড়া বাইপাস, টঙ্গীর স্টেশন রোড থেকে মীরের বাজার, কামারপাড়া রোড থেকে মন্নুগেটের ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়ক ও আবদুল্লাহপুর-আশুলিয়া সড়কে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।  

এ সময় ঢাকাগামী যানবাহনগুলোকে ভোগড়া বাইপাস দিয়ে ৩০০ ফিট রাস্তা ব্যবহার করে চলাচল করতে বলা হয়েছে। যেসব লোকজন ময়মনসিংহ বা গাজীপুর যাবেন, তারা বাইপাইল থেকে জয়দেবপুর চৌরাস্তা হয়ে চলে যেতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

জিএমপি কমিশনার মাহবুব আলম বলেন, দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাত সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১০টার মধ্যে শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। প্রথম পর্বের মতো দ্বিতীয় পর্বেও জিএমপির ৬ হাজার পুলিশ সদস্য মোতায়েন রয়েছে। ইজতেমা শেষ না হওয়া পর্যন্ত পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন থাকবে।

তিনি বলেন, ইজতেমার আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে জিএমপির ট্রাফিক বিভাগকে ঢেলে সাজানো হয়েছে। দূরদূরান্ত থেকে মোনাজাতে অংশগ্রহণের জন্য মুসল্লিরা আসবেন। তাই শনিবার মধ্য রাত থেকে কয়েকটি সড়ক বন্ধ রাখা হয়েছে।  

তিনি আরও বলেন, আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে দেশবিদেশের লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লি মোনাজাতে অংশ নেবেন।

উল্লেখ, গত ২ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয় ৪ ফেব্রুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হয় বিশ্ব ইজতেমা-২০২৪ এর প্রথম পর্ব। প্রথম পর্বে মাওলানা জুবায়েরের অনুসারীরা ময়দানে উপস্থিত ছিলেন।  শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) থেকে বিশ্ব ইজতেমা-২০২৪ এর দ্বিতীয় পর্বের আনুষ্ঠানিকতা শুরু করেন মাওলানা সাদ কান্ধলভীর অনুসারীরা।

গত ৫৭ বছর ধরে টঙ্গীর তুরাগ পাড়ে আয়োজিত হয়ে আসছে তাবলিগ জামাতের আন্তর্জাতিক সম্মেলন বিশ্ব ইজতেমা। ২০১১ সাল পর্যন্ত এক পর্বে তিন দিনব্যাপী টঙ্গীর তুরাগ পাড়ে বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। তবে মুসল্লিদের ব্যাপক উপস্থিতি ও ফেরার সময় জনদুর্ভোগসহ নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনা করে তাবলিগ জামাতের শুরা সদস্যদের পরামর্শের ভিত্তিতে তিনদিন করে দুই ধাপে ইজতেমা আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ বছর (২০২৪ সাল) ২-৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। চারদিন বিরতি দিয়ে ৯-১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দ্বিতীয় ও শেষ পর্ব অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বোরবার সকালে আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে তাবলিগ জামাতের আন্তর্জাতিক সম্মেলন বিশ্ব ইজতেমা-২০২৪।  

বাংলাদেশ সময়: ১০০৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২৪
এসজেএ/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।