ঢাকা, সোমবার, ২ মাঘ ১৪২৮, ১৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

আন্তর্জাতিক

সীমান্তে ইরানি বাহিনীর সঙ্গে তালিবানের সংঘর্ষ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০২৪৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২, ২০২১
সীমান্তে ইরানি বাহিনীর সঙ্গে তালিবানের সংঘর্ষ

আফগানিস্তান-ইরান সীমান্তে ইরানের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সঙ্গে তালিবানের সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। তবে এই ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

পরে দুই পক্ষ একে 'ভুল বোঝাবুঝি' হিসেবে বর্ণনা করেছে।

বুধবার দিনগত রাতে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম 'আল-জাজিরা' এমনটাই জানিয়েছে।

যদিও প্রকাশিত কিছু ভিডিওর বরাতে ইরানের বাইরের বেশকিছু সংবাদমাধ্যম দাবি করেছে, সংঘর্ষে দুই পক্ষের কয়েকজন সৈন্য নিহত ও আহত হয়েছেন। আবার কয়েকটি রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, ইরানের সীমান্তবর্তি কিছু জায়গা নিজেদের দখলে নিয়েছে তালিবান। তবে ইরানি সংবাদমাধ্যমগুলো এমন দাবি উড়িয়ে দিয়েছে।   

সংঘর্ষের কিছু ভিডিও এরইমধ্যে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। ভিডিওতে তালিবান যোদ্ধাদের সীমান্তের দিকে অগ্রসর হতে দেখা গেছে। গুলি ছোড়ার আওয়াজও শোনা গেছে। একটি ভিডিওতে ইরানি সৈন্যদের তরফ থেকে তালিবান যোদ্ধাদের গুলির জবাবে কামানের গোলা নিক্ষেপ করতেও দেখা গেছে।

ইরানের আধা-সরকারি সংবাদ সংস্থা 'তাসনিম'-এর তথ্যমতে, সীমান্তের হিরমান্দ প্রদেশের শাঘালাক গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ইরানের ইরানের রেভ্যুলেশনারি গার্ডের (আইআরজিসি) ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত 'তাসনিম' জানিয়েছে, সীমান্তের কাছে ইরানের কিছু প্রাচীরযুক্ত অঞ্চল আছে, যা চোরাচালানের কাজে ব্যবহার করতে মরিয়া তালিবান।  

'তাসনিম' এর রিপোর্ট অনুযায়ী, ইরানের কয়েকজন কৃষক প্রাচীরগুলো পেরিয়ে গেলেও ইরানি সীমান্তেই ছিলেন। কিন্তু তারা সীমান্ত ছাড়িয়ে আফগানিস্তানের মাটিতে পা রেখেছেন, এই ধারণা থেকে ওই সময় আচমকা গুলি চালায় তালিবান। জবাবে কামান থেকে গোলা ছুড়ে ইরানি বাহিনী। তবে সংঘর্ষ থামিয়ে দুই পক্ষ আলোচনায় বসেছে বলে জানা গেছে।

এদিকে ঘটনার পর ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদেহ এক বিবৃতিতে জানান, 'সীমান্তবর্তি অঞ্চলের কিছু মানুষের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির কারণে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। তিনি বিবৃতিতে তালিবানের নাম উল্লেখ করেননি। তবে আইআরজিসি ঘনিষ্ঠ আরেক ইরানি আধা-সরকারি সংবাদমাধ্যম 'ফার্স নিউজ' দাবি করেছে, ঘটনার সূত্রপাত চোরাচালানকারীদের একটি দল। তবে তারাও জানিয়েছে, সংঘর্ষের ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি এবং ওই অঞ্চলে এখন শান্তি বিরাজ করছে।  

আফগানিস্তানের সিস্তান ও বালুচিস্তান প্রদেশের নিরাপত্তা বিষয়ক শীর্ষ কর্মকর্তা মোহাম্মেদ মোরাশিও ইরানের জাতীয় টেলিভিশনকে সংঘর্ষের ঘটনাকে 'সিরিয়াস কিছু নয়' বলে জানিয়েছেন।  

বাংলাদেশ সময়: ০২৪৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০২, ২০২১
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa