ঢাকা, রবিবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৭, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১ সফর ১৪৪২

আন্তর্জাতিক

চীনা কমিউনিস্ট পার্টির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে তিব্বতিদের বিক্ষোভ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২৯ ঘণ্টা, জুলাই ২৬, ২০২০
চীনা কমিউনিস্ট পার্টির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে তিব্বতিদের বিক্ষোভ স্টুডেন্টস ফর ফ্রি তিব্বতের (এসএফটি) প্রতিবাদ কর্মসূচিতে প্রদর্শিত ব্যানার

চীনা কমিউনিস্ট পার্টির (সিসিপি) ৯৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনে ভারতের হিমাচল প্রদেশের ধর্মশালায় বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে স্টুডেন্টস ফর ফ্রি তিব্বত (এসএফটি)।

সংগঠনটির পরিচালক রিনজিন বলেন, আজ (২৩ জুলাই) চীনা কমিউনিস্ট পার্টির ৯৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনে আমরা চীনা সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ কর্মসূচিতে সমবেত হয়েছি।

তিনি বলেন, চীনাদের জন্য এটি উদযাপনের দিন হলেও তিব্বতি হিসেবে এটা আমাদের জন্য বেদনার দিন। কারণ, চীনা কমিউনিস্ট পার্টির রক্তপাত ও একনায়কতন্ত্রের উপর ভিত্তি করেই প্রতিষ্ঠা হয়েছিল, তাই আমরা আজকের দিনে প্রতিবাদ করতে এসেছি।

তিব্বতি ছাত্র সংগঠনের এই নেতা আরও বলেন, আমরা ৩০/৫০ ফুটের একটি ব্যানার উন্মোচন করেছি, যাতে ‘চীন নিপাত যাক, তিব্বতের স্বাধীনতা ভারতের সুরক্ষা এবং তিব্বত মুক্ত করো’ স্লোগান লেখা হয়েছে। আমরা ভারত সরকারকে তিব্বত ইস্যু বিশেষভাবে উত্থাপনের অনুরোধ করছি। চীন সরকারের ‘একীভূত চীন’ নীতি প্রত্যাখ্যান করার জন্যও ভারত সরকারের কাছে আমাদের আর্জি জানাচ্ছি।

এসএফটি’র কর্মী তেনজিন লোবস্যাং বলেন, আমরা চীনকে বলতে চাই—আমরা তোমাদের ৯৯-তেই ছুড়ে ফেলব, ১০০ পূর্ণ করতে দেব না। আমরা শেষ নিঃশ্বাস অবধি হাল ছাড়ব না—সারা বিশ্বের কাছে এটাই আমাদের বার্তা।

তিব্বতকে চীনের অবিচ্ছেদ্য অংশ বলে বরাবর দাবি করে আসছে চীন সরকার। তবে তিব্বতের নির্বাসিত সরকার বলছে চীনের অবৈধ দখলে থাকা তিব্বত একটি স্বাধীন রাষ্ট্র।

১৯৫০ সালে চীনে অধিষ্ঠিত কমিউনিস্ট সরকার প্রাকৃতিক সম্পদে সমৃদ্ধ তিব্বত দখল করে নেয়। কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ তিব্বতের সাীমান রয়েছে ভারতের সঙ্গে।

সূত্র: এএনআই

বাংলাদেশ সময়: ১৪২৫ ঘণ্টা, জুলাই ২৬, ২০২০
এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa