ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৩ জুন ২০২৪, ০৫ জিলহজ ১৪৪৫

আন্তর্জাতিক

আইসিসিতে নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৭ ঘণ্টা, মে ২০, ২০২৪
আইসিসিতে নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু

আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের (আইসিসি) প্রধান প্রসিকিউটর ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু এবং কয়েকজন হামাস নেতার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির অনুরোধ জানিয়েছেন।

হামাস নেতা ইয়াহিয়া সিনওয়ার, ইসমাইল হানিয়া, মোহাম্মদ আল-মাসরিসহ ইসরায়েলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়োভ গ্যালান্তের বিরুদ্ধেও গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির অনুরোধ জানিয়েছেন করিম খান।

 

করিম খান বলেন, তার বিশ্বাস করার যুক্তিসঙ্গত কারণ আছে যে, তারা যুদ্ধাপরাধ ও মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের জন্য দায়ী।

৭ অক্টোবর ইসরায়েলে হামলা চালায় হামাস। এ নেতাদের বিরুদ্ধে তখনকার সময়ের অভিযোগ আনা হয়েছে। হামাসের হামলার পর গাজায় হামলা শুরু করে ইসরায়েল।

প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদনের নিন্দা জানিয়েছেন ইসরায়েলের নেতারা। যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভার মন্ত্রী বেনি গান্তজ বিষয়টিকে ন্যায়বিচারের গভীর বিকৃতি বলে আখ্যা দিয়েছেন।

হামাসের এক জৈষ্ঠ কর্মকর্তা বলেন, ভুক্তভোগীর সঙ্গে হত্যাকারীদের মেলাতে আইসিসি গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করতে চাচ্ছে।  

আইসিসির একটি প্যানেল করিম খানের আবেদন পর্যালোচনা করবে। খান বলেন, সিনওয়ার, হানিয়া ও আল-মাসরির বিরুদ্ধে নিধন, হত্যা, জিম্মি, আটকে রেখে ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের অভিযোগ আনা হয়েছে।   

নেতানিয়াহু ও গ্যালান্তের বিরুদ্ধে মানবিক ত্রাণ সরবরাহ প্রত্যাখ্যানসহ যুদ্ধের পদ্ধতি হিসেবে নির্মূল, অনাহারে রাখা, ইচ্ছাকৃতভাবে সংঘাতে বেসামরিক লোকদের লক্ষ্যবস্তু করার অভিযোগ আনা হয়েছে।  

ইসরায়েল আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের সদস্য নয়। দেশটি এ আদালতের বিচারকেও স্বীকৃতি দেয় না। তবে ফিলিস্তিনি অঞ্চলগুলো ২০১৫ সালে  সদস্যপদ স্বীকার করে নেয়।  

বাংলাদেশ সময়: ২০০২ ঘণ্টা, মে ২০, ২০২৪
আরএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।