ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

তথ্যপ্রযুক্তি

আইডিএলসি নিয়ে এলো ডিজিটাল সেভিংস সেবা

নিউজ ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০৪০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২, ২০২১
আইডিএলসি নিয়ে এলো ডিজিটাল সেভিংস সেবা

ঢাকা: দেশের সর্ববৃহৎ আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইডিএলসি ফাইন্যান্স প্রথমবারের মতো নিয়ে এলো ‘ডিজিটাল সেভিংস সেবা’।  
দেশব্যাপী আর্থিক অন্তর্ভুক্তির বাইরে থাকা জনগোষ্ঠী বিকাশ অ্যাকাউন্ট এর মাধ্যমে সরাসরি আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইডিএলসি ফাইন্যান্স এর বিভিন্ন মেয়াদি সঞ্চয়সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।

 

আইডিএলসি’র প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আইডিএলসি’র সিইও অ্যান্ড এমডি এম জামাল উদ্দিন এবং
বিকাশের সিইও কামাল কাদীরসহ উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

আইডিএলসি ফাইন্যান্স এর এই যুগান্তকারী উদ্যোগের ফলে বিকাশ গ্রাহকরা এখন যেকোনো সময়, যেকোনো স্থান থেকেই কয়েকটি সহজ ধাপ অনুসরণ করে ক্ষুদ্র অংকের এই মাসিক সঞ্চয়সেবা গ্রহণ করতে পারবেন। প্রতি মাসের নির্ধারিত তারিখে সঞ্চয়ের কিস্তিও বিকাশ অ্যাপ থেকেই জমা দিতে পারবেন এবং সঞ্চয়ের মেয়াদ পূরণ হওয়ার পরে মুনাফাসহ সব টাকা গ্রাহকরা তাদের বিকাশ অ্যাকাউন্টেই পেয়ে যাবেন। নতুন এই সেবা সমাজের সব শ্রেণী-পেশার মানুষকে সঞ্চয়ে উদ্বুদ্ধ করবে বলে আশা করা হচ্ছে। সঞ্চয়ের পদ্ধতিকে আরো সহজ, সাশ্রয়ী, নিরাপদ ও লাভজনক করে তুলবে বলে আশা করা হচ্ছে।

এই সেবার আওতায় বিকাশ গ্রাহকরা বর্তমানে মাসিক ৫০০, ১,০০০, ২,০০০ এবং ৩,০০০ টাকা কিস্তিতে সর্বনিম্ন দুই বছর থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ চার বছর মেয়াদে সরাসরি আইডিএলসি ফাইন্যান্স এর সেভিংস প্রকল্প নিতে পারবেন। প্রতি মাসের নির্ধারিত তারিখে বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে সঞ্চয়ের কিস্তি স্বয়ংক্রিয়ভাবে আইডিএলসি’তে জমা হয়ে যাবে। অ্যাকাউন্টে প্রয়োজনীয় ব্যালেন্স রাখার জন্য নির্ধারিত তারিখের আগে গ্রাহককে নোটিফিকেশন দেওয়া হবে।

গ্রাহকরা মোট জমার পরিমাণ, সঞ্চয়ের মেয়াদ, এবং মুনাফার পরিমাণসহ প্রয়োজনীয় সব তথ্য বিকাশ অ্যাপ থেকেই ‘লাইভ’ দেখতে পারবেন। সঞ্চয় এর মেয়াদ উত্তীর্ণ হলে বা ম্যাচিউরড হয়ে যাওয়ার পর মুনাফাসহ সম্পূর্ণ টাকা গ্রাহকের বিকাশ অ্যাকাউন্টেই চলে আসবে এবং সঞ্চয়ের যেকোনো পর্যায়ে টাকা তুলে নিতে চাইলে তাও বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমেই করতে পারবেন গ্রাহক।

এ বিষয়ে আইডিএলসি’র সিইও অ্যান্ড এমডি এম জামাল উদ্দিন বলেন, “প্রথাগত আর্থিক সেবা খাতের সঙ্গে বিকাশের মতো এমএফএস সেবার মাধ্যমে গ্রাহকদের সংযুক্ত করায় উদাহরণ তৈরি করলো আইডিএলসি ফাইন্যান্স এবং বিকাশের এই যৌথ সেবা। ক্ষুদ্র সঞ্চয়ের মত সেবার এই সহজলভ্যতা সাধারণ মানুষের জীবনমান উন্নয়নে এবং অর্থনৈতিক বিকাশেও ভূমিকা রাখবে।

বিকাশের সিইও কামাল কাদীর বলেন, সারাদেশের কোটি কোটি মানুষের জীবনের অনুষঙ্গে পরিণত হওয়া বিকাশ আবারো প্রযুক্তিগত উদ্বাবনকে কাজে লাগিয়ে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সঞ্চয়সেবা পাওয়াকে আরো সহজলভ্য করলো। সঞ্চয় প্রবণতাকে আরো উৎসাহিত করতে আইডিএলসি’র সঞ্চয়সেবা প্রান্তিক মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়ে তাদের আর্থিক ব্যবস্থাপনায় সক্ষমতা ও স্বাধীনতা আনলো।

সেভিংস সেবা চালু করতে বিকাশ অ্যাপের হোম স্ক্রিনে ‘ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে সঞ্চয়/সেভিংস’ আইকন ক্লিক করে নিজের এবং নমিনির তথ্য যোগ করে কয়েকটি সহজ ধাপে সেবাটি চালু করতে পারবেন গ্রাহক।

জানা যায়, বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী এই সঞ্চয়ের মুনাফা ও অন্যান্য বিধিবিধান প্রতিপালিত হবে ও ই- কেওয়াইসি এর মাধ্যমে নিবন্ধিত বিকাশ গ্রাহকরাই আইডিএলসি’র এই সঞ্চয়সেবা নিতে পারছেন। পরবর্তীতে সব গ্রাহক এই সেবার আওতায় আসবেন।

বাংলাদেশ সময়: ০০২৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০২, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa