ঢাকা, শনিবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

তথ্যপ্রযুক্তি

আইফোন ফোর এ যুক্ত হচ্ছে জেইলব্রেকিং টুলস

সিজারাজ জাহান | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২১৫ ঘণ্টা, জুন ২৮, ২০১০

বিশ্বজুড়ে চলছে আইফোন ফোর উন্মাদনা। উন্মোচনের এক সপ্তাহ পরেই অ্যাপল ভোক্তাদের জন্য জেইলব্রেকিং টুলস এর সমন্বয়ে আইফোন ফোর বাজারে ছাড়ার উদ্যোগ নেয়।

প্ল্যানেট বিং নামের আইফোন ডেভ টিম হ্যাকার ও আইফোনের উন্নয়ক জেইলব্রেকিং টুলসটি আইফোন ফোর সংস্করণে আনতে সক্ষম হয়েছে। যার মাধ্যমে ভোক্তারা  আইফোন আনলকের সুযোগ পাবে।
প্রযুক্তিটি বাস্তবায়ন সম্ভব হচ্ছে কোড ব্যবহার করে। উল্লেখ্য, আগে ঘোষিত আইপডের জন্য তৈরি স্পিরিট জেইলব্রেক কোড ব্যবহার হয়েছে নতুন আইফোনে। যা কমেক্স নামের সফটওয়্যার কোড নির্মাতা জেইলব্রেকের কোডটি তৈরি করেছিল। এটা নিশ্চিত যদি জেইলব্রেকিং টুলস ব্যবহারে সহজবোধ্যতা আনে। তবে আগ্রহী ভোক্তারা প্রয়োজনে নতুন টুলস যুক্ত আইফোনটি পাবে। তবে এখনও জানা যায়নি আগ্রহীরা কবে নাগাদ জেইলব্রেক টুলসটি ব্যবহারের সুযোগ পাবে।
নির্মাতা সূত্র জানিয়েছে, নতুন অনন্য প্রযুক্তি সেবার খবর প্রচারে আইফোন ফোর এর ব্যবহারকারীর সংখ্যা বাড়বে। অচিরেই জেইলব্রেকটি ছাড়া হলে আগ্রহী ভোক্তারা ফোন আনলক করার সুযোগ ছাড়াও অন্য সব সমাধান পাবেন।
সদ্য ঘোষিত আইফোন ফোর চিপ প্রসেসরে এফোর সিস্টেমে নিয়ন্ত্রিত হবে। একটি ভিন্ন মডেলের সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয়েছে নতুন প্রযুক্তিতে। যা পুরনো মডেলের আইপ্যাডেও ছিল। আনলক সমাধানে জেইলব্রেকিং উন্মোচিত হলে যে কোনো সিম ব্যবহারের উপযোগী হবে। তাছাড়া আইফোন ফোরে মাইক্রোসিম ব্যবহার করা যাবে। উল্লেখ্য, প্লানেট বিং এর আগেও আইফোনে এনড্রুয়েড অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহারে সফল হয়। সূত্র জানিয়েছে, অ্যাপলের প্রোপাইটারি কোড এর নব নির্মিত আইফোন ফোরের জেইলব্রেকিং দ্রুতই ব্যবহারযোগ্য হবে।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ১৯২০ ঘণ্টা, জুন ২৮, ২০১০
এসজেড/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa