bangla news

স্বাস্থ্যখাতে মোট খরচের ৬০ শতাংশ বহন করছে রোগীরা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১২-০২-২০ ৮:০১:৪০ এএম

দেশে বর্তমানে স্বাস্থ্যখাতে মোট খরচের ৬০ শতাংশ বহন করছে রোগীরা। স্বাস্থ্যসেবা নেওয়ার সময় রোগীরা সরাসরি নিজ পকেট থেকে এ অর্থ ব্যয় করছে।

ঢাকা: দেশে বর্তমানে স্বাস্থ্যখাতে মোট খরচের ৬০ শতাংশ বহন করছে রোগীরা। স্বাস্থ্যসেবা নেওয়ার সময় রোগীরা সরাসরি নিজ পকেট থেকে এ অর্থ ব্যয় করছে।

বেসরকারি সংস্থা ব্রাক এর প্রকাশিত ‘বাংলাদেশ হেলথ ওয়াচ রিপোর্ট ২০১১’ তে এ তথ্য জানানো হয়।

সোমবার ব্রাক সেন্টারে এ রিপোর্টের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়।

অধ্যাপক ড. রওনক জাহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ অর্মত্য সেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. আ ফ ম রুহুল হক।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের স্বাস্থ্যখাতে অব্যাহত উন্নতি ঘটলেও এখনো গরীব মানুষ চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করতে গিয়ে আর্থিক সংকটের মুখে পড়ে।

আরও জানানো হয়, বিশ্বব্যাংকের একটি রিপোর্টে দেখা যায় যে, বাংলাদেশের গরিব মানুষকে স্বাস্থ্য সেবা পেতে নিজে সঞ্চয়ের ২২ শতাংশ অর্থ ব্যয় করতে হয়।

তাই গরিব মানুষের জন্যে সাশ্রয়ী মূল্যে ভালো স্বাস্থ্য সেবা লাভের সুযোগ সৃষ্টি করা গেলে, তা দারিদ্র বিমোচনে সহায়ক হতে পারে বলে পরামর্শ দেওয়া হয়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সুপারিশ অনুযায়ী, সার্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা (ইউএইচসি) অর্জনে বাংলাদেশের অগ্রগতি কতটুকু তা জানার জন্যে এ অনুসন্ধানমূলক গবেষণা পরিচালিত হয়।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, জনসংখ্যার ১০ শতাংশ ধনী মানুষ জাতীয় স্বাস্থ্যখাতের ব্যয়ের ১৫ শতাংশ সুফল ভোগ করে, অন্যদিকে দরিদ্র মানুষের ১০ শতাংশের মধ্যে ভোগ করে মাত্র ৮ শতাংশ।

বলা হয়, আগামী ২০১৫ সাল পর্যন্ত স্বাস্থ্যখাতে বাজেট বরাদ্দ ৩৫ শতাংশ হারে বাড়াতে হবে।

আরও বলা হয়, মাত্র ১৮ দশমিক ৩ শতাংশ হাসপাতালে শয্যা ব্যহারের হার। উপজেলা পর্যায়ে এ হার মাত্র ১২ দশমিক ৬ শতাংশ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্মত্য সেন স্বাস্থ্য বীমা চালু করা যায় কিনা সেটা ভেবে দেখতে বলেন। কমিউনিটি পর্যায়ে স্বাস্থ্য সেবা বৃদ্ধির জন্যে বলেন, মানুষের খরচ কমাতে হবে। স্বাস্থ্য টুথপেস্ট বা ব্রাশ নয়। এখানে বিনিয়োগ করলে লাভ মুহুর্তেই পাওয়া যাবে না। বিনিয়োগ বাড়াতে হবে। একটি বড় পদক্ষেপ নিতে হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী স্বাস্থ্যখাতে সরকারের নেওয়া বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরেন। তিনি অবহেলিত অঞ্চলের জন্যে বাড়তি সুবিধা দেওয়ার জন্যে বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুহুল হক বলেন, অর্থ সংকট রয়েছে এ খাতে। তারপরও সরকার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। গরীবদের স্বাস্থ্য সেবা এখনো নিশ্চিত করা যায়নি বলে জানান তিনি। অবকাঠামোগত সমস্যা রয়েছে বলেও জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

বাংলাদেশ সময় : ১৮৫৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১২

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2012-02-20 08:01:40