ঢাকা, সোমবার, ৯ কার্তিক ১৪২৮, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার ফি এখনও নির্ধারণ হয়নি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১
বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার ফি এখনও নির্ধারণ হয়নি

ঢাকা: আগামী দুই-এক দিনের মধ্যে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাত্রী ও প্রবাসীদের করোনা টেস্ট শুরু হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা বিভাগের সিভিল সার্জন আবু হোসেন মো. মঈনুল আহসান।

রোববার (২৬ সেপ্টেম্বর) হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে স্থাপিত করোনা টেস্টিং ল্যাবের কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

সিভিল সার্জন বলেন, রোববার সকালে ৯৬ জনের নমুনা নেওয়া হয়েছে। তবে এই মুহূর্তে করোনা পরীক্ষা ফি নির্ধারণ করা হয়নি। সংশ্লিষ্ট বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো পরীক্ষার একটি বাজেট দিয়েছে। সেই বাজেট পর্যালোচনা চলছে।

এই মুহূর্তে সবচেয়ে বেশি বিমানবন্দরের স্বাস্থ্য নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান সিভিল সার্জন।  

বিদেশগামী যাত্রী ও প্রবাসীদের দীর্ঘদিনের আন্দোলনের পর শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাতে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাত্রীদের করোনা টেস্ট করার ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। ল্যাব স্থাপনের কাজ শেষ হলেও যাত্রীদের করোনা পরীক্ষা শুরু হয়নি।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সূত্র জানায়, বিমানবন্দরের ভেতরে ল্যাব স্থাপনের কাজ শেষ হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের দুটি টেকনিক্যাল কমিটি গঠিত হয়েছে। ওই কমিটি করোনা টেস্টিং ল্যাবের সমস্ত প্রক্রিয়া দেখছেন।

প্রবাসীদের জন্য সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকার যাত্রা শুরুর ৬ ঘণ্টা আগে র‍্যাপিড পিসিআর টেস্ট করানোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। দীর্ঘদিন ধরে ঢাকার বিমানবন্দরে এই ব্যবস্থা না থাকায় আমিরাতে ফিরতে পারছিলেন না প্রবাসীরা। তবে কয়েক দফা পেছানোর পর অবশেষে শনিবার ল্যাব স্থাপনের কাজ শেষ হয়।

এর আগে বুধবার ল্যাব তৈরির কাজ আংশিক সম্পন্ন করেই সেখানে টেস্ট করিয়ে পরীক্ষামূলকভাবে ৪৬ জনকে দুবাই পাঠানো হয়েছে। এখন পুরোদমে পরীক্ষা শুরুর পালা।

এই করোনা টেস্ট ল্যাব স্থাপনের যে ছয় প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দেওয়া হয় সেগুলো হলো- স্টেমজ হেলথ কেয়ার (বিডি) লিমিটেড ঢাকা, সিএসবিএফ হেলথ সেন্টার, এএমজেড হাসপাতাল লিমিটেড, আনোয়ার খান মডার্ন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, গুলশান ক্লিনিক লিমিটেড ও ডিএমএফআর মলিকুলার ল্যাব অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক।  

করোনা মহামারির মধ্যে আমিরাত বাংলাদেশ থেকে বিমান যোগাযোগ শুরু করলেও এর জন্য শর্ত জুড়ে দেয়। আমিরাতের দেওয়া শর্তের মধ্যে রয়েছে- বাংলাদেশের বিমানবন্দর থেকে ফ্লাইটের ৬ ঘণ্টার মধ্যে র‌্যাপিড পিসিআর টেস্ট করে ফল নেগেটিভ আসতে হবে। এছাড়া আমিরাতে প্রবেশ করার পর আবারও করোরা পরীক্ষা করা হবে। আমিরাতের দেওয়া ৬ ঘণ্টার মধ্যে পরীক্ষার শর্তের জন্য বাংলাদেশে আটকে যান প্রায় ৭ হাজার প্রবাসী। ল্যাব স্থাপনের ফলে তারা শিগগিরই দেশটিতে যেতে পারবেন বলে আশা করা যাচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২১
এসজেএ/জেএইচটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa