bangla news

ডিমেনশিয়ার ঝুঁকিতে বাংলা‌দেশ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-২১ ৮:০০:০৬ পিএম
ডিমেনশিয়া কেয়ার ফাউন্ডেশনের জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। ছবি- বাংলাদেশ

ডিমেনশিয়া কেয়ার ফাউন্ডেশনের জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। ছবি- বাংলাদেশ

ঢাকা: ‌বি‌শ্বের যে কয়‌টি দেশ ডিমেনশিয়ার ঝুঁকিতে আছে তার ম‌ধ্যে বাংলা‌দেশও র‌য়ে‌ছে ব‌লে জা‌নি‌য়ে‌ছে ডিমেনশিয়া কেয়ার ফাউন্ডেশন।

শ‌নিবার (২১ ডিসেম্বর) ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালের অডিটোরিয়ামে ডিমেনশিয়া কেয়ার ফাউন্ডেশনের জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানানো হয়।

ফাউন্ডেশনের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও সাধারণ সম্পাদক ব‌লেন, বর্তমানে সারা বিশ্বে ৫০ মিলিয়ন (পাঁচ কোটি) মানুষ ডিমেনশিয়ায় আক্রান্ত। ২০৫০ সাল নাগাদ এই সংখ্যা দাঁড়াবে ১৫২ মিলিয়নে (১৫ কোটিরও বেশি)। নিম্ন ও মধ্যম আয়ের দেশে এই রোগের প্রকোপ বেশি। উদ্বেগের বিষয় হলো বাংলাদেশও ডিমেনশিয়ার ক্ষেত্রে ঝুঁকিপুর্ণ দেশগুলোর মধ্যে একটি। ধারণা করা হয়, বাংলাদেশে ডিমেনশিয়ায় আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ১০ লাখেরও বেশি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও ডিমেনশিয়া কেয়ার ফাউন্ডেশনের মধ্যে বাংলাদেশে ডিমেনশিয়া বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি, গবেষণা, প্রশিক্ষণ, আক্রান্ত মানুষের সেবাসহ বিভিন্ন বিষয়ে যৌথভাবে কাজ করার লক্ষ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। 

অনুষ্ঠানের ২য় ধাপে ডিমেনশিয়ার বৈশ্বিক ও আঞ্চলিক প্রেক্ষাপট, চিকিৎসা, সেবা ও সমস্যা, বাংলাদেশে ডিমেনশিয়া নিয়ে কাজের অভিজ্ঞতা ও ভবিষ্যত করণীয় নিয়ে এক আ‌লোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরোসায়েন্স ও হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. কাজী দ্বীন মোহাম্মদের সভাপ‌তি‌ত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপ‌স্থিত ছি‌লেন- স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, ডিমেনশিয়া কেয়ার ফাউন্ডেশন এবং ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরোসায়েন্স ও হাসপাতালের যুগ্ম পরিচালক অধ্যাপক ডা. বদরুল আলম, ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা ফ্রাঙ্ক শেফার প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২১, ২০১৯
এমএএম/এইচজে

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   স্বাস্থ্যসেবা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2019-12-21 20:00:06