ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ আগস্ট ২০২০, ২৩ জিলহজ ১৪৪১

স্বাস্থ্য

পুরোপুরি সেবার মনোভাব নিয়ে কাজ করবেন চিকিৎসকরা

তামিম মজিদ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬২৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৮, ২০১৯
পুরোপুরি সেবার মনোভাব নিয়ে কাজ করবেন চিকিৎসকরা

ঢাকা: নিজেদের অর্জিত মেধা ও জ্ঞান দিয়ে জনগণের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন ৩৯তম বিশেষ বিসিএস (স্বাস্থ্য) ক্যাডারে নিয়োগপ্রাপ্ত চিকিৎসকরা।

তারা বলছেন, জনগণকে স্বাস্থ্য সেবা দিতে যে উদ্যোগ, সেই অভিযাত্রী দলের সদস্য হতে পেরে আনন্দিত। সেই সঙ্গে চিকিৎসকদের যে দুর্নাম রয়েছে, সেটা থেকে বেরিয়ে আসতে তারা কাজ করবেন।

বাংলানিউজের সঙ্গে আলাপকালে নবীন চিকিৎসকরা তাদের অনুভূতি প্রকাশ করে এসব কথা বলেন।  

রংপুর মেডিক্যাল কলেজ থেকে পাস করে ৩৯তম বিশেষ বিসিএসে যোগদানকরা ডা. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, জনগণের কাছে স্বাস্থ্য সেবা পৌঁছে দিতে সরকারের যে প্রচেষ্টা, আমাদের অর্জিত জ্ঞান দিয়ে তা নিশ্চিত করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো।

তিনি বলেন, বাণিজ্যিক চিন্তাধারা থেকে বেরিয়ে এসে নিজের কাজের মাধ্যমে সেই দুর্নাম গোছাতে কাজ করবো। রাষ্ট্র ও জনগণের কাছে যে দায়বদ্ধতা রয়েছে, সেটা পালন করবো।  

আরও পড়ুনআইসিসিবিতে নতুন স্বাস্থ্য ক্যাডারদের ওরিয়েন্টেশন
ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে পাসকরা  ডা. খাদিজাতুল কোবরা তিশা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের জনগণের সেবার যে সুযোগ করে দিয়েছেন, সেজন্য আমরা কৃতজ্ঞ। চিকিৎসকদের একটি দুর্নাম রয়েছে যে, তারা গ্রামে যেতে চায় না। সেটা থেকে বেরিয়ে আসতে আমরা গ্রামে পোস্টিং হলে সেখানে যাব। তবে কর্মস্থল যাতে কাজের উপযোগী ও পরিবেশ সুন্দর হয়, সেটা সরকারকে নিশ্চিত করতে হবে।  

৩৯তম বিশেষ বিসিএসের আরেক চিকিৎসক ডা. নাসিম মোর্শেদ। তিনিও পড়াশোনা করেছেন রংপুর মেডিকেল কলেজে। আমাদের ডাক্তারদের যে দুর্নাম রয়েছে, সেটা থেকে বেরিয়ে এসে আমার দেশের মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো। কারণ জনগণের দেওয়া ট্যাক্সের টাকায় আমরা পড়াশোনা করেছি, আমরা সেই খেটে খাওয়া মানুষকে সবচেয়ে অগ্রাধিকার দেবো।  

ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করে ৩৯তম বিশেষ বিসিএস ক্যাডারে যোগদান করেছেন ডা. সুরাইয়া ইয়াসমিন নিপা। তিনি বাংলানিউজকে বলেন, আমাদের জায়গা থেকে জনগণকে সেবা দিতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো। আমরা শুধু কাজের অনুকূল পরিবেশ চাই। তাহলে আমাদের থেকে সবটুকু দেবো ।  

আরও পড়ুন> ৪৪৪৩ চিকিৎসককে বরণ করলো স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

আরেক চিকিৎসক ডা. সায়মা আহমেদ রেমি বলেন, রাষ্ট্র আমাকে যে দায়িত্ব কাঁধে তুলে দিয়েছে, সেই দায়িত্ব পালনে কোনো কার্পণ্য করবো না। সাধারণ মানুষকে সেবা দিতে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেবো।  

ডা. হালিমা জাহান বলেন, আজকে আমি খুবই আনন্দিত। মানবসেবার মহান পেশায় যোগদান করছি। সেই সেবার মানসিকতায় যাতে অটল থাকতে পারি, সেজন্য মহান রাব্বুল আলামিনের কাছে প্রার্থনা করি এবং সবার দোয়া চাই।  

৩৯তম বিশেষ বিসিএস (স্বাস্থ্য) ক্যাডারে যোগদান করবেন ৪ হাজার ৪৪৩ জন চিকিৎসক।  

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে আয়োজিত নবনিয়োগপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত রয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।  

বাংলাদেশ সময়: ১১২৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯
টিএম/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa