ঢাকা, বুধবার, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১, ২৪ জুলাই ২০২৪, ১৭ মহররম ১৪৪৬

ফুটবল

মদ্রিচের স্বপ্ন জয়ের মিশন

স্পোর্টস ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১৪ ঘণ্টা, জুন ১৫, ২০২৪
মদ্রিচের স্বপ্ন জয়ের মিশন

ক্রোয়েশিয়া ফুটবলের অবিচ্ছেদ্য এক নাম লুকা মদ্রিচ। ক্রোয়েশিয়ার সোনালী প্রজন্মের স্বপ্ন সারথীদের একজন তিনি।

তবে প্রায় দুই দশক দলের সঙ্গে থাকলেও এখনও জাতীয় দলের হয়ে বড় কোনও ট্রফি জেতা হয়নি এই সুপারস্টারের।  

যদিও ক্লাব ক্যারিয়ারে তার সাফল্য রীতিমতো চোখ ধাঁধানোর মতো। লিওনেল মেসি কিংবা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর চেয়ে ক্লাব ক্যারিয়ারে পিছিয়ে নেই তিনি। আক্ষেপ কেবল জাতীয় দলের হয়ে শিরোপার স্বাদ না পাওয়া। এবারের ইউরো মিশনে সেই আক্ষেপ ঘোচাতে চাইবেন এই মহাতারকা।

জাতীয় দলের হয়ে শিরোপা খরা ইউরো দিয়েই ঘুচিয়েছিলেন মদ্রিচের একসময়কার রিয়াল মাদ্রিদ সতীর্থ রোনালদো। এবার কি মদ্রিচ নিজে পারবেন সেই দলে নাম লেখাতে? তা অবশ্য সময়ই বলে দেবে। আজ ইউরোর মিশনে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামবে তার দল ক্রোয়েশিয়া; প্রতিপক্ষ স্পেন। ম্যাচটা শুরু হবে রাত ১০টায়।  

ক্রোয়েশিয়ার জন্য ২০১৮ বিশ্বকাপের ফাইনাল ছিল সর্বোচ্চ অর্জন। ইউরোপের শ্রেষ্ঠত্বের টুর্নামেন্ট ইউরোতে সেই অতৃপ্তি ঘোচানোর লক্ষ্যে আজ শনিবার মাঠে নামছে তার দল। আসরের দ্বিতীয় দিন স্পেন-ক্রোয়েশিয়া ম্যাচটা জমজমাট লড়াইয়ের আভাস দিচ্ছে। ইউরোতে চতুর্থবার মুখোমুখি হচ্ছে তারা। সেই ম্যাচে নিজের সেরাটা দিতে মুখিয়ে মদ্রিচ। রিয়াল মাদ্রিদে যেভাবে অবদান রেখে চলেছেন, নিজের দেশকেও একই উঁচুতে তুলে ধরতে চাইছেন অভিজ্ঞ মিডফিল্ডার, ‘বেশ কয়েকবার তাদের (স্পেন) মুখোমুখি হয়েছি। তাই বিস্তারিত ভালো করেই জানি। যেটা ভাগ্য নির্ধারণে সহায়তা করবে। প্রতিটি মুহূর্তেই নিজেদের সেরাটা মেলে ধরতে হবে। আর আমরা বড় ম্যাচ খেলতে কখনও বিরক্ত হই না। ’

ওপেনিং ম্যাচে ক্রোয়েশিয়াকে নেতৃত্ব দেবেন ৩৮ বছর বয়সী মদ্রিচ। এটাই হতে যাচ্ছে তার ক্যারিয়ারের শেষ বড় টুর্নামেন্ট। এই আসরে ২০১৮ বিশ্বকাপের ফাইনালিস্টরা ফেভারিট না হলেও তাদের ডার্ক-হর্স ভাবা হচ্ছে। সেটা অবশ্য মদ্রিচকে মোটেও সমস্যায় ফেলছে না, ‘আমাদের ডার্ক-হর্স ভাবা হলেও সেটাতে সমস্যা নেই। কিছু মনে করি না। অনেক বছর পর আমি এখানে এসেছি। এবং এখানে থাকতে পেরে ভীষণ আনন্দিত। ’

প্রতিপক্ষ স্পেন টুর্নামেন্টের তিনবারের বিজয়ী। ১৯৬৪, ২০০৮ ও ২০১২ সালের পর চতুর্থ শিরোপা জয়ের খোঁজে নামছে। দলটির কোচ লুইস ডি লা ফুয়েন্তে ভালো করেই জানেন সেজন্য পথটা মসৃণ নয়,‘আমি এটা নিশ্চিত শিরোপার জন্য আমাদের লড়াই করতে হবে। এটাও মাথায় রাখতে হবে বিজয়ী হবে একটি দল। আর অনেক ভালো দল আছে যারা এই ট্রফি জয়ের যোগ্য। ’

ক্রোয়েশিয়া অবশ্য এই স্পেনকে নিয়ে ভীষণ সতর্ক। বিশেষ করে দলটির কোচ দালিচের মতে, আগের বছরের চেয়ে এখন আরও বেশি গতিময় ফুটবল খেলছে তার দল, ‘তারা প্রথমে বল দখলে রাখতো এবং টিকিটাকায় অভ্যস্ত ছিল। তাতে প্রতিপক্ষকে ক্লান্ত করে বিধ্বস্ত করতো। এখন কিন্তু সম্পূর্ণ ভিন্ন। তাদের সেন্টার ফরোয়ার্ড আছে, রয়েছে মোরাতা। তার অপর প্রান্তে আছে গতিময় খেলোয়াড়। তাই এখন উপরে তাদের খেলা আরও গতি পেয়েছে। ’      

একই রাতে মাঠে নামছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ইতালি। দিবাগত রাত ১টায় তাদের প্রতিপক্ষ আলবেনিয়া। এবারের ইউরোয় গ্রুপ অব ডেথ বলা হচ্ছে ‘বি’ গ্রুপকে। যেখানে দুই সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইতালি, স্পেনের সঙ্গে রয়েছে সাবেক বিশ্বকাপ ফাইনালিস্ট ক্রোয়েশিয়া। আলবেনিয়াও কম যায় না। তারাও বেশ শক্তিধর দেশ। সুতরাং, এটা নিশ্চিত যে, দ্বিতীয় রাউন্ডের আগেই ফেবারিটদের মধ্যে একটি কিংবা দুটির বিদায় ঘটে যাবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১৪ ঘণ্টা, জুন ১৫, ২০২৪
এআর/এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।