ঢাকা, বুধবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২২ মে ২০২৪, ১৩ জিলকদ ১৪৪৫

ফুটবল

হেরেও সিটিকে নিয়ে গর্বিত গার্দিওলা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৪০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৮, ২০২৪
হেরেও সিটিকে নিয়ে গর্বিত গার্দিওলা

টানা দ্বিতীয়বার ট্রেবল জয়ের দৌড়ে বেশ শক্তভাবেই ফেভারিট ছিল ম্যানচেস্টার সিটি। কিন্তু গতকালের পর সেই স্বপ্ন এখন ধুলোয় পরিণত হয়েছে।

কোয়ার্টার ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদের কাছে টাইব্রেকারে হেরে চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বিদায় নিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

গেলবার ঘরের মাঠে রিয়ালকে তছনছ করে ছেড়েছিল সিটি। কিন্তু এবার ইতিহাদ স্টেডিয়ামে হৃদয় ভাঙার কাব্য লিখল তারা। রিয়ালের মাঠে প্রথম লেগ ৩-৩ গোলে ড্র হওয়ায় সেমিফাইনালে যাওয়ার ক্ষেত্রে ফেভারিট ছিল ইংলিশ ক্লাবটি। কিন্তু দ্বিতীয় লেগে নিজেদের মাঠে শুরুতেই রদ্রিগোর গোলে পিছিয়ে যায় তারা। ৭৬তম মিনিটে কেভিন ডি ব্রুইনার সমতাসূচক গোলে অবশ্য প্রাণ ফিরে পায়।

১২০ মিনিটের লড়াই শেষে খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। সেখানেই বাজিমাত রিয়ালের। ৪-৩ ব্যবধানে পেনাল্টি শুটআউট জিতে সেমিফাইনালে পা রাখে তারা। সিটির হয়ে পেনাল্টি মিস করেন বের্নার্দো সিলভা ও মাতেও কোভাচিচ। হেরে যাওয়ায় যারপরনাই হতাশ সিটি কোচ পেপ গার্দিওলা। তবে শিষ্যদের নিয়ে গর্বে বুক্ ফুলে উঠছে তার।

তিনি বলেন, 'এমনটা হয়ই– কখনো কখনো আপনি পেনাল্টিতে জেতেন এবং কখনো কখনো জেতেন না। যেভাবে আমরা খেলেছি, তাতে আরও আগেই খেলা শেষ করে দেওয়া উচিত ছিল। আমার একদমই কোনো অনুশোচনা নেই। আক্রমণাত্মক ও রক্ষণাত্মকভাবে আমরা সবকিছুই করেছি। ফুটবল হলো গোলের খেলা। ' 

'পেনাল্টি শুটআউটে তারা আমাদের থেকে কিছুটা ভালো ছিল। যে কারণে তারা সেমিফাইনালে এবং আমরা নই। আমার খেলোয়াড়দের হৃদয়ের অন্তস্তল থেকে ধন্যবাদ জানাতে হবে। '

টাইব্রেকারের আগে কেভিন ডি ব্রুইনা ও আরলিং হালান্ডকে মাঠ থেকে তুলে নেওয়ার ব্যাখ্যায় গার্দিওলা বলেন, 'তারা চাইছিল তাই তুলে নিয়েছি। তারা আর চালিয়ে যেতে পারছিল না। রিয়াল মাদ্রিদকে হারাতে হলে সেরাটা দিয়ে খেলতে হয়। আমরা আমাদের সেরা রূপে ছিলাম কিন্তু তা যথেষ্ট ছিল না। '

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৮, ২০২৪
এএইচএস 
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।