ঢাকা, বুধবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৭ শাওয়াল ১৪৪৫

ফুটবল

২০৩৪ বিশ্বকাপের আয়োজক হতে আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব দিল সৌদি

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪৯ ঘণ্টা, মার্চ ২, ২০২৪
২০৩৪ বিশ্বকাপের আয়োজক হতে আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব দিল সৌদি

একমাত্র দেশ হিসেবে ২০৩৪ বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব দিয়েছে সৌদি আরব। যেখানে তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী নেই।

যদিও অস্ট্রেলিয়া আগ্রহ দেখিয়েছিল। তবে অক্টোবরে ফিফার ডেডলাইনের আগমুহূর্তে আবেদন সরে দাঁড়ায় তারা।

সবকিছু ঠিক থাকলে সৌদি আরবই হতে যাচ্ছে ২০৩৪ বিশ্বকাপের আয়োজক। বছরের শেষ দিকে জুরিখে অনুষ্ঠিত হবে ফিফার কংগ্রেস। সেখানেই আয়োজকের নাম ঘোষণা করবে ফিফা। সৌদি আরব একমাত্র দেশ হিসেবে আগ্রহ দেখালেও ফিফার নিয়ম অনুযায়ী, আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব দিতে হয়।

সেই প্রস্তাব দেওয়ার পর সৌদি আরব ফুটবল ফেডারেশনের (সাফ) সভাপতি ইয়াসের আল মিসেহাল বলেন, 'আমাদের ফুটবল ইতিহাস বিশ্বকে জানানোটা  খুবই গুরুত্বপূর্ণ। পুরুষ ও নারী উভয় খেলাতেই আমরা নজিরহীন উন্নতি করেছি এবং এই রোমাঞ্চকর যাত্রায় আমাদের সঙ্গী হতে এই প্রস্তাব বিশ্বের জন্য এক উন্মুক্ত আমন্ত্রণ। '

বিডের প্রচারণায় সাফের স্লোগান হলো 'গ্রোয়িং টুগেদার' (একসঙ্গে বেড়ে উঠা)। যা রাজ্য, রাজ্যের মানুষ ও বিশ্ব ফুটবলের সঙ্গে বন্ধন গড়ে তুলবে বলে বিশ্বাস করে সাফ।

দেশের অর্থনীতির পরিধি বাড়ানোর কৌশল হিসেবে ক্রীড়াঙ্গনকে গুরুত্বপূর্ণ অংশ মনে করেন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। তাই ২০২১ সালের পর থেকে ক্রীড়াখাতে ৫ বিলিয়ন পাউন্ড অর্থ বিনিয়োগ করেছে সৌদি। ফুটবলসহ ফর্মুলা ওয়ান, গলফ ও বক্সিংয়ের বিভিন্ন বড় ইভেন্ট আয়োজন করেছে তারা। এছাড়া সৌদি প্রো লিগের চারটি ক্লাব ও নিউক্যাসল ইউনাইটেড কেনার পাশাপাশি এলআইভি গলফ সিরিজেও বিনিয়োগ করেছে দেশটির পাবলিক ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড।

সৌদি আরবের এমন উদ্যোগ আলোচনার পাশাপাশি জন্ম দিয়েছে সমালোচনাও। মানবধিকার লঙ্ঘনের ইস্যু দামাচাপা দিতে এমনটা করছে তারা, বলে মনে করে বেশ কয়েকটি মানবধিকার সংস্থা। তাই 'স্পোর্টসওয়াশিং' এর অভিযোগ আনে তারা।

তবে গত ডিসেম্বরে বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সৌদির ক্রীড়ামন্ত্রী আব্দুলআজিজ বিন তুর্কি আল ফয়সাল সেই অভিযোগ অস্বীকার করেন। তিনি বলেন, 'আমাদের মোট জনসংখ্যার মধ্যে ২ কোটির বয়স ৩০ বছরের নিচে। ফলে আমরা বিশ্ব ক্রীড়ার উন্নতি এবং আন্তর্জাতিক কমিউনিটির সঙ্গে তাদের যুক্ত রাখতে ভূমিকা রাখছি। আমরা আমাদের সামর্থ্যের সর্বোচ্চটা দিয়ে ৮৫টির বেশি আন্তর্জাতিক ইভেন্ট আয়োজন করেছি। আশা করছি ২০৩৪ সালে মানুষ অসাধারণ একটি বিশ্বকাপ পাবে। '

২০২২ বিশ্বকাপের আয়োজক কাতারের নামেও একই অভিযোগ উঠেছিল। তবে সবকিছু পাশ কাটিয়ে একটি সফল বিশ্বকাপ উপহার দেয় তারা! সৌদি আরব ২০৩৪ বিশ্বকাপের আয়োজক হলে, প্রথমবারের মতো একক দেশে অনুষ্ঠিত হবে ৪৮ দলের বিশ্বকাপ। আগামী ২০২৬ বিশ্বকাপে প্রথমবার অংশ নেবে ৪৮ দল। যা অনুষ্ঠিত হবে যুক্তরাষ্ট্র, মেক্সিকো ও কানাডায়। এর পরের বিশ্বকাপের আয়োজক মরক্কো, পর্তুগাল ও স্পেন। তবে প্রথম তিনটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে উরুগুয়ে, আর্জেন্টিনা ও প্যারাগুয়ে।

কাতার বিশ্বকাপের মতো ২০৩৪ বিশ্বকাপও শীতকালীন মৌসুমে অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৬ ঘণ্টা, মার্চ ২, ২০২৪
এএইচএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।