ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২৩ শাবান ১৪৪৫

ক্রিকেট

ফেসবুক যুগের না হওয়ায় নিজেকে ‘ভাগ্যবান’ বলছেন মাশরাফি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯০৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৬, ২০২৩
ফেসবুক যুগের না হওয়ায় নিজেকে ‘ভাগ্যবান’ বলছেন মাশরাফি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশির ভাগ সময়ই আলোচনায় থাকে কোনো না কোনো ইস্যু। ক্রিকেটই জায়গা দখল করে থাকে বেশি।

একেক সময় একেক ক্রিকেটারকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠে ফেসবুকে।  

এখন যেমন নাজমুল হোসেন শান্ত পরিণত হয়েছেন লক্ষ্যবস্তুতে। প্রায়ই তাকে নিয়ে সমালোচনা হয়। খারাপ খেললে তো বটেই, ভালো খেললেও। এর আগে লিটন দাসকে নিয়েও দেখা গেছে একই রকম দৃশ্য। গত কয়েকদিনে শান্ত জানিয়েছেন নিজের অস্বস্তির কথাও। এ প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা বলছেন, তাদের ক্যারিয়ারের শুরুতে ফেসবুক না থাকায় ভাগ্যবান ছিলেন।

বিপিএলে সিলেট স্ট্রাইকার্সকে নেতৃত্ব দেওয়া মাশরাফি সিলেটে বৃহস্পতিবার বলেছেন, ‘আমি মনে করি, আমাদের প্রজন্মটা খুব ভাগ্যবান যে, আমাদের সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম তেমন ছিল না। এখন যারা খেলছে তারা কিন্তু... যারা মানসিকভাবে শক্তিশালী, যারা এসব থেকে দূরে থাকে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে দূরে থাকে বা কে কী লিখছে, বলছে এগুলো যারা দেখে না তাদের জন্য কাজটা সহজ হবে। ’

‘বাংলাদেশে আপনি হাতেগোনা দুজন, একজন কিংবা সর্বোচ্চ তিনজন ক্রিকেটার পাবেন যারা হয়তো বা এই ধরনের আক্রমণ ছাড়াই আন্তর্জাতিক (ক্রিকেটে) এসে পারফর্ম করে লম্বা সময় টিকে রয়েছে। ’

ক্যারিয়ারের শুরুতে প্রতিভা দিয়ে নজর কাড়লেও খুব একটা ধারাবাহিক ছিলেন না তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিম। সেই সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থাকলে তাহলে তারা আজকের অবস্থানে পৌঁছাতে পারতেন না বলে মনে করেন মাশরাফি। তিনি বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম যদি থাকতো তাহলে তামিম ইকবাল হয়তো তামিম ইকবাল হতে পারতো না। এটা আমি বিশ্বাস করি। মুশফিক তো আসা যাওয়ার মাঝে ছিল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ একই জিনিস। আপনি যদি বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট দেখেন যারা ১০-১২ বছর খেলেছে তারা এভাবেই স্থায়ী হয়েছে। ’ 

নানা সমালোচনার মধ্যে দিয়ে যাওয়া শান্ত সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ছিলেন দলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। ৭ ম্যাচ খেলে ৫৬.২০ গড় ও ১১৪.২২ স্ট্রাইক রেটে ২৮১ রান করেছেন এবারের বিপিএলে। সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় আছেন তিন নম্বরে। শান্তকে লম্বা রেসের ঘোড়া বলছেন মাশরাফি।

তিনি বলেছেন, ‘আপনি বিশ্বকাপে দেখেন, শান্ত কিন্তু আমাদের সবার বিপক্ষে গিয়ে (দাঁড়িয়ে) প্রায় দুইশ রান করে এসেছে। আগে একদিনও বলেছিলাম। পরে আবার সংগ্রাম করেছে, এখন আবার রান করছে। শান্তকে কিছুটা এর ভেতর দিয়ে যেতে হচ্ছে। আমি সবসময় বিশ্বাস করি যে মৌলিক খেলোয়াড়দের উঠে আসা এই টুর্নামেন্ট থেকেই হয়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে লড়াই করার সময়টা থাকতে পারে। ’

‘মানসিকভাবে শক্তিশালী থাকা গুরুত্বপূর্ণ। যেটা শান্তর ক্ষেত্রে আমি দেখেছি লিটনের মতো বাইরের জিনিসগুলো এত কানে নেয় না। সেক্ষেত্রে আমার বিশ্বাস হয় এই ছেলেটা লম্বা রেসের ঘোড়া। এটা আমার কাছে মনে হয়। দিনশেষে সবকিছুতে উপর আল্লাহর রহমত প্রয়োজন হয়। কারণ আমি বিশ্বাস করি এই ছেলেটা বাংলাদেশকে অনেক কিছু দিতে পারবে। ’

বাংলাদেশ সময় : ১৯০৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৬, ২০২৩
এমএইচবি/এএইচএস
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।