ঢাকা, শুক্রবার, ৯ আশ্বিন ১৪২৮, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫ সফর ১৪৪৩

ফিচার

লকডাউনে সারাদিন যেমন ছিলো রাজধানী

রাজীন চৌধুরী, সিনিয়র ফটো করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫০ ঘণ্টা, এপ্রিল ৫, ২০২১
লকডাউনে সারাদিন যেমন ছিলো রাজধানী

ঢাকা: সারাদেশে সোমবার (৫ এপ্রিল) থেকে এক সপ্তাহের লকডাউন শুরু হয়েছে। উদ্দেশ্য করোনা সংক্রমণ রোধ করা।

এবারের লকডাউনে সড়কে মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা যায়নি। গণপরিবহন আর সড়কের পাশের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ছাড়া এবার সবই খোলা।  লকডাউনে অসুবিধায় পড়েছেন চাকরিজীবী আরিফ। তিনি উত্তরার ৬ নম্বর সেক্টরে একটা প্রাইভেট ব্যাংকয়ের কর্মকর্তা ও খিলক্ষেতের বাসিন্দা। বাসা থেকে বের হয়েছেন সকাল ৭টা ৩০ মিনিটে। রাস্তায় এক ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকেও বাসে উঠতে পারছেন না তিনি। কারণ সীমিত সংখ্যক গণপরিবহন। অতপর একটি স্টাফ বাস দেখে অনেক অনুরোধ করে রাজি করালেন বাসচালককে তাকে একটু উত্তরায় নামিয়ে দেওয়ার জন্য।  এদিকে আরিফের মতো যারা রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকে গণপরিবহন করে অফিস যাওয়ার জন্য, না পেরে তারা বাধ্য হয় পিকআপভ্যান, রিকশা, অটোরিকশা অথবা সিএনজি করে গন্তব্যে পৌঁছানোর। আজকের দিনে সড়কগুলোতে পুরোপুরি রাজত্ব করেছে, রিকশা ও সিএনজি। চালকরাও ভাড়া হাঁকিয়ে নিচ্ছে নিজেদের মনমর্জি অনুযায়ী। কারণ সাধারণ যাত্রীদের চলাচলে সড়কে নেই গণপরিবহন (বাস)।  অপরদিকে সকালে দেখা গেছে মিনি পিকআপভ্যান ও লেগুনায়ও যাত্রীরা চলাচল করছেন। আবার সিএনজিচালকরা বেশি ভাড়া পাওয়ার আসায় শেয়ারিং করেও যাত্রী নিচ্ছেন। সিএনজি অটোরিকশা চালকরা সুযোগের সদ্ব্যবহার করছে। ভাড়া দ্বিগুণ দিয়ে যেতে হবে।  জহির বসবাস করেন টঙ্গীতে। তিনি একটি হাসপাতালের লিফটম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। গণপরিবহন না পেয়ে হাঁটতে হাঁটতে চলে এসেছেন আব্দুল্লাপুরে। তার পক্ষে সম্ভব না ৬০০ টাকা ভাড়া দিয়ে সিএনজি করে ধানমন্ডি যাওয়া।  
আশেপাশে আরো অনেক মানুষ দাঁড়িয়ে আছেন বাস এর জন্য, এর মাঝে ৯ জন মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে পিকাপভ্যান পেলে থামাবে, তাতে করেই যাবে অফিস। রাস্তা আটকিয়ে থামিয়ে দিলেন একটি মালবাহী পিকাপভ্যান। গাড়ির চালক বলছিলেন আপনাদের নিয়ে গেলে তো আমার কোনো সমস্যা নেই, কিন্তু রাস্তায় পুলিশ থামাবে. তখন? এ প্রশ্নের জবাব নেই জহিরের কাছে।

বাংলাদেশ সময়: ২১০০ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৫, ২০২১
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa